শেকৃবি প্রতিনিধি

  ২৯ এপ্রিল, ২০২১

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভয়ংকর কর্মচারী সিন্ডিকেট, লাঞ্চিত শিক্ষার্থী

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ভবন। পাশে অভিযুক্ত আহসান হাবিব।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অবস্থিত জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে কয়েকজন প্রভাবশালী কর্মচারীর দৌরাত্ম্যে বিপর্যস্ত সাধারণ সেবা কার্যক্রম। সেবা নিতে আসা রোগীদের থেকে প্রতিটি কাজের জন্য টাকা আদায়সহ চরম অসদাচরণের অভিযোগ উঠেছে কর্মচারীদের বিরুদ্ধে।  

জানা যায়, বুধবার হাসপাতালে সেবাগ্রহীতা শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থীর কাছে টাকা দাবি করেন সংশ্লিষ্ট কর্মচারীরা। এ সময় তিনি বাড়তি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে হাসপাতালের কর্মচারী আহসান হাবিব তাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ শুরু করেন। পরিচালকের কাছে অভিযোগ কথা বললে হাবিব বলেন, ‘জাহান্নামে যান, এতে আমার কিছু হবে না’। এ অবস্থায় এ শিক্ষার্থী ভিডিও ধারণ করলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে তার মোবাইল ফোন কেড়ে নেন ও ভেঙে ফেলেন। 

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে হাবিব নিজে জড়িত না দাবি করে বলেন, ‘আমরা কারো সঙ্গে এরকম আচরণ করতে পারি না। কালকে আমাদের এক স্টাফের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হয়, পরে উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাদের সঙ্গে বসে সমাধান করে দেয়া হয়েছে এবং তাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছে।’ ভিডিও ফুটেজের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাকে নিষেধ করা হয়েছিল কিন্তু মোবাইলে হাত দেয়া হয় নাই।

আহসান হাবিব বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক।

পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি হাসপাতাল প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারাও এই সিন্ডিকেটের কাছে নিজেদের অসহায়ত্বের কথা জানিয়ে বলেন, তাদের এই সিন্ডিকেটকে আমরা কিছু করতে পারি না, তারা খুব প্রভাবশালী। লিখিত অভিযোগ প্রদান সাপেক্ষে পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দেন হাসপাতাল উপপরিচালক।

পিডিএসও/হেলাল

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট,সিন্ডিকেট,শেকৃবি
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close