খুবি প্রতিনিধি

  ২৬ জানুয়ারি, ২০২১

খুবির ২ শিক্ষার্থীর অনশন ভাঙালেন উপাচার্য

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে (খুবি) অনশনরত দুই শিক্ষার্থীর অনশন ভাঙিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। অনশনরত ওই দুই শিক্ষার্থীর দুঃখপ্রকাশ করে দেয়া লিখিত বক্তব্যের প্রেক্ষিতে খুবি প্রশাসন তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের আশ্বাস দেয়। 

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা বোর্ডের জরুরি সভা ডেকে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। মঙ্গলবার, রাত ৮টায় অনশনরত দুই শিক্ষার্থী, মোবারক হোসেন নোমান এবং ইমামুল ইসলাম সোহানের অনশন ভাঙানো হয়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, ট্রেজারার, ছাত্রবিষয়ক পরিচালক, বিভিন্ন স্কুলের ডিনসহ আরও শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় অনশনরত শিক্ষার্থীরা উপাচার্য বরাবর আরেকটি চিঠি প্রদান করেন। ওই চিঠিতে তারা বলেন, শিক্ষকের সাথে অসদাচরণ অবশ্যই অনাকাক্সিক্ষত বিষয়। দুইজন শিক্ষকের সাথে অসদাচারণের যে অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে আনা হয়েছে তার সাথে তাদের কোনো সংশ্লিষ্টতা নাই। তারা আরও বলেন, তাদের অজ্ঞাতে তাদের আচরণে যদি কোনো শিক্ষক কষ্ট পেয়ে থাকেন তার তার জন্য তারা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

আরও জানা গেছে, খুলনা ইউনিভার্সিটি এলামনাই এসোশিয়েশনের (কুয়া) মধ্যস্থতায় এই সমস্যার নিরসন হয়েছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় কুয়ার ৩ জন প্রতিনিধি এসে অনশনকারীদের সাথে কথা বলেন। এর পরপরই তারা অনশন ভাঙাবার জন্য উপাচার্যকে নিয়ে আসেন।

অনশনরত শিক্ষার্থী মোবারক হোসেন নোমান বলেন, আন্দোলন চলাকালে ছাত্র সমাজ, সাংবাদিক ভাইদের আমরা সবসময় পাশে পেয়েছি, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ। আশা করছি, আগামীকালের মধ্যে আমাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হবে।

অনশন ভাঙানোর পরে উপাচার্য শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, শিক্ষকেরা কখনোই শিক্ষার্থীদের অমঙ্গল চান না। তারা চান শিক্ষার্থীরা যেনো তাদের ভুল থেকে শিখতে পারে। আজ তারা দুঃখপ্রকাশ করে চিঠি দিয়েছে। এবারে অতি দ্রুতই শৃঙ্খলা বোর্ডের সভা আয়োজন করা হবে এবং তাদের বিষয়টি সর্বোচ্চ সহানুভূতির সাথে দেখা হবে।

উল্লেখ্য, ১৯ জানুয়ারি বাংলা ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী ৩য় বর্ষের মোবারক হোসেন নোমান এবং ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ইমামুল ইসলাম সোহান তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের নিচে আমরণ অনশন শুরু করেন। এরপরে বিভিন্ন দফায় ওই দুই শিক্ষার্থী বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়ে চিঠি দিলেও চিঠিতে দুঃখপ্রকাশ করেননি বিধায় প্রশাসনের সাড়া মেলেনি।

পিডিএসও/এসএম শামীম

 

খুবি শিক্ষার্থী,অনশন,উপাচার্য
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close