৪ বছর ধরে মহিলাদের স্কার্ট-হিল পরে অফিসে যাচ্ছেন তিনি ‌

প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪৮

অনলাইন ডেস্ক

মেয়েদের জিন্স-টি শার্ট কিংবা ব্লেজার-প্যান্ট পরতে প্রায়ই দেখা যায়। কিন্তু কখনও কোনও ছেলেকে স্কার্ট এবং হাই হিল জুতা পরতে দেখেছেন?‌ আর শুধু পরে থাকা নয়, অফিসেও যাতায়াত করেন?‌ এমন কারোর হদিশ এতদিন না পেলেও এবার পাওয়া গিয়েছে। খোঁজ মিলেছে এমন এক ব্যক্তির, যিনি রোজ অফিসে স্কার্ট পরে যান। সঙ্গে থাকে হাই হিল জুতাও।

জানা গিয়েছে, মার্ক ব্রায়ান নামে পেশায় রোবোটিকস ইঞ্জিনিয়ার ওই ব্যক্তি বিবাহিত। তিন সন্তান রয়েছে। কাজ করেন জার্মানির একটি সংস্থার উঁচু পদে। কিন্তু গত চার বছর ধরে ৬১ বছর বয়সি মার্ক প্রতিদিনই অফিস যাচ্ছেন মহিলাদের মতো পোশাক পরে। কিন্তু কেন এই কাজ করছেন?

মার্কের কথায়, সব ধরনের পোশাককে জনপ্রিয় করতে এবং পোশাক নিয়ে লিঙ্গবৈষম্য দূর করতেই তার এই ভাবনা। নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে সে কথা লিখেছেন তিনি। তিনিও এও জানান, তার এরকম পোশাক পরায়, কখনই তার সহকর্মীরা প্রশ্ন তোলেননি।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‌‘‌আমার সহকর্মীরা কখনই পোশাক নিয়ে আমাকে কিছু বলেনি। এরকম পোশাক পরার আগেও আমি অফিসে হিল পরে আসতাম।’

আসলে লিঙ্গবৈষম্য শুধু এদেশের নয়, গোটা বিশ্বের সমস্যা। নারী-পুরুষের অধিকার সমান নয়, সমাজের একাংশ আজও একথা বিশ্বাস করে। আর তাই বিভিন্ন জায়গায় এখনও মহিলাদের উপর অত্যাচারের খবর সামনে আসে। তবে এই সমস্ত কিছুকেই যেন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ল মার্কের এই সিদ্ধান্ত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই ভাইরাল মার্ক। অনেকেই তার এই কাজের প্রশংসাও করেছেন। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

পিডিএসও/ জিজাক