ক্রীড়া ডেস্ক

  ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

নিজ দেশে ডমিঙ্গোরা ফিরবেন ওমানে

জিম্বাবুয়ে সফর থেকে টানা সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ দল। জিম্বাবুয়ের পর ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলেছে মাহমুদউল্লাহরা। গত ২৯ জুন থেকে দলের সঙ্গী রাসেল ডমিঙ্গো-ওটিস গিবসনসহ অন্য কোচিং স্টাফরা। নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষ হতেই ছুটিতে দেশে ফিরছেন তারা। আগামী ৩ অক্টোবর বিশ্বকাপ খেলতে ওমানে যাওয়ার কথা বাংলাদেশের। সেখানেই দলের সঙ্গে যোগ দেবেন ডমিঙ্গোসহ কোচিং স্টাফের অন্যরা।

প্রধান কোচ ডমিঙ্গো ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক শুক্রবার রাতেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিমান ধরেছেন। বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের গতকাল ইংল্যান্ডের উদ্দেশে বিমানে চড়েন। এ ছাড়া রঙ্গনা হেরাথ শ্রীলঙ্কায়, ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স যাবেন দক্ষিণ আফ্রিকায়। কম্পিউটার অ্যানালিস্ট আইপিএলে কাজ করতে যাবেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এ ছাড়া স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ নিক লি ও ট্রেনার জুলিয়ান কেলাফতে রাতে ঢাকা ছাড়বেন বলে বিসিবি সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বিশ্বকাপে অংশ নিতে ৪ অক্টোবর ওমান যাবে বাংলাদেশ। কোভিড ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নেওয়া থাকায় ক্রিকেটারদের কোয়ারেন্টাইন করা লাগবে না। যদিও বিমানে ওঠার আগে ও বিমান থেকে নেমে করোনা পরীক্ষার মুখে পড়তে হবে ক্রিকেটারদের।

ওমানে পৌঁছার তিন দিন পরই শুরু হবে অনুশীলন। সপ্তাহখানেক নিজেদের খরচে ক্যাম্প করে বাংলাদেশ আইসিসির তত্ত্বাবধানে ঢুকে যাবে। এরপর আইসিসির সুযোগ-সুবিধা নেবে বাংলাদেশ। তবে প্রস্তুতি ম্যাচগুলো খেলতে যেতে হবে দুবাইয়ে। এরপর আবার ফিরতে হবে ওমানে।

ওমানে প্রথম রাউন্ড শুরুর আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশের। প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ড। এর আগে বাংলাদেশ দলের নির্দিষ্ট সময়ের এক সপ্তাহ আগে ওমানে ট্রেনিং ক্যাম্প করার কথা।

আগামী ১৭ অক্টোবর উদ্বোধনী দিনে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ খেলতে নামবে ‘বি’ গ্রুপে থাকা বাংলাদেশ। প্রথমে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় মাঠে নামবে একই গ্রুপে থাকা স্বাগতিক ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। তারপরই স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে মাহমুদউল্লাহরা। এরপর ১৯ ও ২১ অক্টোবর বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যথাক্রমে ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close