ভারতের প্যারাদ্বীপ কর্তৃপক্ষের দ্রুত অভিযান

গভীর সমুদ্রে রক্ষা পেলেন বাংলাদেশি ৩ নাবিক

প্রকাশ : ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০

কাজী আবুল মনসুর, চট্টগ্রাম

ভারতের প্যারাদ্বীপ বন্দরে বড় ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা পেলেন তিন বাংলাদেশি নাবিক। জাহাজ থেকে সাগরে পড়ে যাওয়ার পর বন্দর কর্তৃপক্ষের ত্বরিত পদক্ষেপে তারা বেঁচে যান। তাদের প্যারাদ্বীপ পোর্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নাবিকদের ছবি ভারতীয় গণমাধ্যমে এলেও তাদের নাম জানা যায়নি।

প্যারাদ্বীপ বন্দরের হারবার মাস্টার এসি সাহুর নেতৃত্বে রেসকিউ টিম জাহাজটির দ্বিতীয় প্রকৌশলী, তৃতীয় প্রকৌশলী ও ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। উদ্ধার নাবিকদের জাহাজ কর্তৃপক্ষ দেখাশোনা করছেন বলে জানা গেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ওড়িশার প্যারাদ্বীপ বন্দরের মেরিন দল গভীর সমুদ্র থেকে তিন বাংলাদেশি নাবিককে উদ্ধার করেছে। তারা ওশান সেঞ্চুরি নামের একটি জাহাজের প্রকৌশলী বলে জানা গেছে। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে প্যারাদ্বীপ বন্দরের উদ্ধারকারী দল জরুরি ভিত্তিতে খবর পেয়ে তাদের একটি লাইফ বোট থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। তাদের নাম জানা যায়নি। তাদের অবস্থা স্থিতিশীল আছে বলে ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্র জানায়।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওশান সেঞ্চুরি জাহাজটি মাল্টার পতাকাবাহী। এ জাহাজটি গত ১৪ অক্টোবর চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ভারতের উদ্দেশে রওনা হয়। জাহাজটি লোহার গুঁড়াবোঝাই করার জন্য ওড়িশার প্যারাদ্বীপ বন্দরে ঢোকার অপেক্ষায় ছিল। এখান থেকে পণ্য নিয়ে নির্দিষ্ট পথে যাত্রার কথা ছিল। আবহাওয়াজনিত কারণে এমনিতেই সাগরের অবস্থা খারাপ। বৃহস্পতিবার জাহাজটি প্যারাদ্বীপ

বন্দরের বহির্নোঙর থেকে বন্দরের ঢুকার সময় অসাবধানতাবশত প্রধান তিন নাবিক পড়ে যান। পরে সাগরে পোর্ট প্যাট্রলিং ক্রাফট আর টাগ বোট পাঠানো হয়।

জানা গেছে, বন্দরের হারবার মাস্টারের নেতৃত্বে উদ্ধারকারী দল দুই ঘণ্টা পর তাদের উদ্ধার করে টাগ বোটে তুলে নেয়। একই সঙ্গে তাদের লাইফ বোটটিও টাগের সাহায্যে বেঁধে বন্দরে নিয়ে আসেন।

বিষয়টি নিয়ে আলাপকালে চট্টগ্রামের মার্কেন্টাইল মেরিন ডিপার্টমেন্টের ক্যাপ্টেন ফয়সল আজিম জানায়, ঘটনাটি শুনেছি। তিন প্রকৌশলী সুস্থ আছেন। তাদের সঙ্গে পরিবারের আলাপ হয়েছে। জাহাজটি বন্দরের ভেতরে পণ্যবোঝাইয়ের জন্য যাওয়ার প্রস্ততিকালে লাইফ বোট রক্ষণাবেক্ষণের সময় তারা সাগরে পড়ে যান বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, প্যারাদ্বীপ বন্দরটি ভারতের ওড়িষ্যার জগতসিংপুর জেলার একটি প্রাকৃতিক বন্দর। ভারতের মহানন্দা নদী ও বঙ্গোপসাগর পরিবেষ্টিত এ বন্দরটি কলকাতা বন্দরের ২১০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত। বাংলাদেশ ও ভারতের সঙ্গে নৌচলাচল চালু হওয়ার পর চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য জাহাজ এখনো ভারতের যেকোনো বন্দরে যেতে পারে।

 

"