চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

  ১৭ অক্টোবর, ২০২১

বিদ্যুতের পিলারে বেঁধে শ্বশুর বাড়ির নির্যাতন, জামাই নিহত

চুয়াডাঙ্গায় শ্বশুর বাড়ির লোকজনের নির্যাতনের শিকার জামাই মিঠুন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৫২ দিন পর মারা গেছেন।

নুর নবী মিঠুন জীবননগর উপজেলার বাজদিয়া গ্রামের মৃত হোসেন আহমেদের ছেলে।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় তিনি মারা যান। রবিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৯টার দিকে নিহতের লাশ দাফন শেষে বেলা ১১টার দিকে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে এলাকাবাসী মানববন্ধনসহ প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

এ সময় বক্তব্য রাখেন-আন্দুলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার, নিহতের বড়ভাই মশিয়ার রহমান, স্থানীয় মেম্বার জহিরুল ইসলাম, মাওলানা আবু সাইদ, আওয়ামী লীগ নেতা আ.খালেক প্রমুখ।

বক্তারা মিঠুন হত্যার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মিঠুন তার স্ত্রীকে আনতে ২৩ আগস্ট একই গ্রামে শ্বশুর বাড়ি যান। এক পর্যায়ে তার স্ত্রীর সাথে মনোমালিন্য হলে শ্বশুর আশরাফুল ইসলাম জামাইকে বেধড়ক মারপিট করে বাড়ির পাশে বিদ্যুতের পোলের সাথে বেঁধে রাখেন। এর পরে শ্বশুর বাড়ির অন্য লোকজন এসে ঐ অবস্থায় আবারও কয়েক দফা মিঠুনের ওপরে নির্যাতন চালান।

সংবাদ পেয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় মিঠুনের স্বজনরা উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে নেওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জামাই নিহত,নির্যাতন,শ্বশুর বাড়ি,বিদ্যুতের পোল
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close