সবুজ আহমেদ

  ১৫ অক্টোবর, ২০২১

জ্যোতিময় জবা দ্যুতিময় রূপ

 

তুমি আলোর তৈরি অপূর্ব ফুল

বিহঙ্গের বাসার মতো দুটি চোখ

মধুমালা গলা তোমার গোলকধাঁধা

কোমল স্বরে বলো সুসংবদ্ধ কথামালা

মুক্তহস্তদ্বয় দুদিকে বয়ে যাওয়া দুটি পথ।

 

খেলার মাঠ পরিপাটি পিঠের অগ্রভাগ

নাক তার চারাগাছের সরু শেকড়

পেট যেন জলাশয় থইথই ভরা পুকুর

শুষ্ক বেলাভূমিতে তুলে ঝড় ভেজা দুটো ঠোঁট।

 

কামুক সারা শরীর লোমঘেরা ছায়াবীথি বন

অন্ধেরও উন্মাদনায় জাগায় স্ফীত দুটি স্তন

খোঁপা খোলা হাওয়া খায় আঁধার কালো চুল

হাসলে ঝরে মণিমুক্তো ঝরনার জলে স্রোত।

 

কাজল কালো বাঁকা পাপড়ি, পেখম মেলা ভ্রু

কানে দোলে দীর্ঘ দুল, কোঁচড়ভরা তিল

নজরকাড়া নিতম্ব, নিম্নতলে রূপময় নাভিমূল

গোলগালের একপাশে টলটলে ঢোল

আহা, দ্যুতি ছড়ানো জবার জ্যোতিময় রূপ।

 

ভুবন ভোলানো অপরূপে ছেয়ে থাকে কবি

আরো কারো কলিজায় লাগে দেখে চাল-চলন সবি।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close