reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

রাজধানীতে ২ ভবনের মাঝে ছিল গৃহবধূর মরদেহ

প্রতীকী ছবি

রাজধানীর শাহবাগের পরীবাগে দুই ভবনের মাঝখান থেকে ইভানা লায়লা চৌধুরী (৩২) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি মিরপুরের স্কলাস্টিকা স্কুলে ক্যারিয়ার গাইডেন্স কাউন্সিলর হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তবে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন নাকি হত্যাকাণ্ডের শিকার তা পরিষ্কার করতে পারেনি পুলিশ।

বুধবার বিকেলে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মরদেহ উদ্ধারকারী শাহবাগ থানার এসআই আব্বাস বলেন, ইভানাকে বেলা বারোটা থেকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না তার পরিবারের সদস্যরা। পরে আশপাশের লোকজন দেখতে পায় দুই ভবনের মাঝে তার লাশ পরে আছে। স্থানীয়রা জাতীয় জরুরি নম্বর ‘৯৯৯’ মাধ্যমে আমাদের সংবাদ দেয়। পরে আমরা সেখান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করি।

তিনি আরো বলেন, তিনি মৃতা দীর্ঘ দিন অসুস্থ ছিলেন। তাদের ধারনা তিনি লাফিয়ে পরে মারা গেছেন। ঢাকার বনানীর আমান উল্লাহ চৌধুরীর মেয়ে ইভানা। বর্তমানে স্বামীর বাড়ি শাহবাগের পরীবাগ হাবিবুল্লাহ রোডের সাকুরা গলির ৯ তলা ভবনের ৫ম তলায় থাকতেন। স্বামীর নাম ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ মাহমুদ হাসান।

ইভানার বাবা আমান উল্লাহ চৌধুরী জানান, বুধবার তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য হয়। খবর পেয়ে দুপুরে তিনি ওই বাসায় যান। তবে বাসায় যাবার পর ইভানাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে তাকে দুই ভবনের মাঝে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

শাহবাগ থানার ওসি মওদুত হাওলাদার জানান, ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ওই নারী ভবন থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। পারিবারিক কলহের কারণে তিনি এ ঘটনা ঘটাতে পারেন বলে ধারণা করছে পুলিশ। পুরো বিষয় তদন্ত করে ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
গৃহবধূর,মরদেহ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close