আজ থেকে অধস্তন আদালতে স্বাভাবিক কার্যক্রম

প্রকাশ : ০৫ আগস্ট ২০২০, ১১:০৭

অনলাইন ডেস্ক

দীর্ঘ প্রায় চারমাস পর আজ থেকে দেশের অধস্তন আদালতে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আদালতে প্রাঙ্গণে আসা প্রত্যেককে মানতে হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি এবং এ সংক্রান্ত সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসনের নির্দেশনা।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কোভিড ১৯-এর বিস্তার রোধে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও দেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা সকলকে মানতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব প্রতিপালন করতে হবে। এজলাস, সাক্ষী ডক এবং কাঠগড়ায় প্রয়োজনীয় অংশে গ্লাস দিয়ে পৃথক পৃথক প্রতিরোধক প্রকোষ্ঠ প্রস্তুত ব্যবস্থা নিতে হবে। আদালত প্রাঙ্গণে প্রবেশ দ্বারে হাত ধোঁয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখতে হবে। প্রত্যেককে মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস ব্যবহার করতে হবে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া আদালত প্রাঙ্গণে আসা থেকে বিরত থাকতে হবে। আদালত প্রাঙ্গণে এবং এজলাস কক্ষে প্রবেশের পূর্বে প্রত্যেকের তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা রাখা। সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক আদালতের কার্যক্রমের সময় এমনভাবে নির্ধারণ করবেন যেন অতিরিক্ত সমাগম না হয়। একটি মামলায় দুজনের বেশি আইনজীবী থাকা যাবে না। মামলার কার্যক্রমে সংশ্লিষ্ট আসামির এজলাস কক্ষে হাজিরের আবশ্যকতা নেই।

কোভিড-১৯ রোধকল্পে অধস্তন আদালতের জন্য স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ে সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসনের নির্দেশনা বিস্তারিত সুপ্রিমকোর্টের ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনাজনিত উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবিলায় গত ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত দেশে সাধারণ ছুটি ছিল। ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস খুললেও দেশের আদালতে স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় নতুন প্রণীত তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার সংক্রান্ত বিধানের অধীনে দেশের অধস্তন আদালতে সীমিত পরিসরে ভার্চুয়ালি বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছিল। আজ বুধবার থেকে দীর্ঘদিন পর স্বাভাবিক হয়েছে দেশের অধস্তন আদালত অঙ্গন।

পিডিএসও/হেলাল