reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

তালেবান শাসনে শাস্তি হিসেবে ফিরবে মৃত্যুদণ্ড!

ছবি : সংগৃহীত

আফগানিস্তানে পুনরায় শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড ও অঙ্গচ্ছেদ ফিরে আসবে এমনটাই জানালেন তালেবানের সাবেক ধর্মবিষয়ক পুলিশ মোল্লা নুরুদ্দিন তুরাবি। 

মোল্লা তুরাবি নব্বই দশকে তালেবান শাসনামলে কুখ্যাত শাস্তিদাতা ছিলেন। বর্তমানে তুরাবি প্রধান কারারক্ষী হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। তিনি এপি নিউজকে জানান, এসব শাস্তি নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয়। তিনি অবশ্য আশ্বস্ত করেন এসব শাস্তি তালেবানের আগের শাসনামলের মত জনসম্মুখে হবেনা।

গত ১৫ আগস্টে আফগানিস্তানে পুনরায় ক্ষমতাদখলের পর তালেবান প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তারা পূর্বের তুলনায় সহনশীলতা দেখাবে।কিন্তু ইতোমধ্যেই তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ পাওয়া যায়। 

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) হিউম্যান রাইটস ওয়াচের সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, হেরাতে অবস্থানরত তালেবানরা হাই প্রোফাইল নারীদের খুঁজছে। নারী স্বাধীনতাবিষয়ক আন্দোলন করতে বাঁধা দিচ্ছে এবং ড্রেসকোড ছাড়া নারীদের ঘরের বাইরে বের হতে দিচ্ছেনা।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জানায়,গত আগস্টে হাজারা নৃগোষ্ঠীর নয়জনের গণহত্যার পেছনে রয়েছে তালেবানরা।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সাধারণ সচিব অ্যাগনেস কালামারড বলেন, পূর্বের '  ঠাণ্ডা মাথার নৃশংসতা' পুনরায় তালেবান তাদের শাসনে দেখাতে চলেছে।' 
 
তালেবানের এক বিচারক হাজি বদরুদ্দিন বিবিসিকে বলেন, তিনি ইসলামের আক্ষরিক এবং কঠোর আইনকে সমর্থন করেন। শরিয়া আইনমতে বিয়ের আগের যৌনসম্পর্কের শাস্তি ১০০ বেত্রাঘাত, চোরের হাত কেটে দেয়া এবং পরকীয়াতে পাথর ছুঁড়ে হত্যার শাস্তিকে তিনি মানেন। বদরুদ্দিনের মত কট্টরপন্থী দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে আরো অন্যান্য রক্ষণশীল আফগানদেরও। 

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস জানান,যদিও তালেবানের সাথে যোগাযোগ জরুরি তবে জাতিসংঘের সাধারণ সভা তাদের জন্য উপযুক্ত স্থান নয়।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
তালেবান,শাস্তি,মৃত্যুদণ্ড
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close