উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

  ১৫ জুন, ২০২৪

কোরবানি পশুর চামড়া কেনার চলছে প্রস্তুতি 

ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় হাটিকুমরুলে কোরবানী পশু চামড়া কেনাবেচায় আড়ত মালিকেরা ও মহাজনেরা সব কিছু গুছিয়ে নিচ্ছেন। জেলার রোড এলাকা থেকে বড় মোকামের পাইকারী কেনাবেচার চামড়া আড়তগুলো হাটিকুমরুলে স্থানান্তর করা হয়েছে। এবারে আড়তে কোরবানী পশু চামড়া বেশি সংখ্যক কেনাবেচার হবে বলে আশা ধারণা করা হচ্ছে। তবে ফরিয়া ব্যবসায়ীদের চামড়া কিনতে মহাজনেরা আগাম টাকা দিচ্ছেন না।

জানা গেছে, কোরবানী পশু চামড়া কেনায় মহাজন ও ফরিয়া ব্যবসায়ীরা চালান (পুঁজি) যোগাড় করছেন। ফরিয়া ব্যবসায়ীদের চামড়া কিনতে মহাজনেরা আগাম টাকা দিচ্ছেন না। উল্লাপাড়া উপজেলার হাটিকুমরুলে সিরাজগঞ্জ রোড চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির বর্তমান সদস্য সংখ্যা ২১১ জন। এখানে চামড়া কেনাবেচায় প্রায় ২৫টি আড়ত আছে। এরইমধ্যে আড়তগুলোয় ব্যবসায়ীরা কোরবানী পশু চামড়া কেনার মোটামুটি সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়ে সব গুছিয়ে নিচ্ছেন।

হাটিকুমরুলের শারমীন এণ্টারপ্রাইজের মালিক সাবু মিয়া জানান, এখানকার আড়তগুলোয় এবারে প্রায় ৬০ হাজার কোরবানী পশু চামড়া কেনাবেচা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর প্রায় ৯৫ ভাগই কেনাবেচা হবে গরু চামড়া। এবারে এখানকার আড়তগুলোর ব্যবসায়ীরা কোরবানী পশু চামড়া কেনায় ফরিয়া ব্যবসায়ীদেরকে চালান যোগানে আগাম টাকা দেওয়া হচ্ছে না। ফরিয়ারা চামড়া কিনে আড়তে আনলে তা উপযুক্ত দামে কেনা হবে।

এদিকে আরো জানা গেছে, মধ্যম শ্রেণির অনেক মহাজন ও ফরিয়া ব্যবসায়ীদের অনেকে গ্রামে ঘুরে চামড়া কেনায় হাওলাতসহ নানা উপায়ে ব্যবসায় চালান বাবদ টাকা যোগাড় করছেন। উল্লাপাড়া উপজেলা সদরের শ্যামলীপাড়া এলাকায় কোরবানী পশু চামড়া কেনাবেচায় তিন চারটি অস্থায়ী আড়ত খোলা হবে।

শ্যামলীপাড়া এলাকায় পুরানো পশু চামড়া ব্যবসায়ী মোহাব্বত আলী জানান, তিনি কোরবানী পশু চামড়া কিনতে মোটামুটি সব গোছগাছ করেছেন। তিনি নিজ আড়তে বসেই ফরিয়া ও কোরবানী দাতাদের কাছ থেকে কোরবানী পশু চামড়া কিনবেন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া,কোরবানীর চামড়া,আড়ত মালিক
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close