দোহার (ঢাকা) প্রতিনিধি

  ১৪ জুন, ২০২৪

দোহার-নবাবগঞ্জে জনপ্রিয় ‘পিছফল’

ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

ঢাকার দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলায় ব্যাপক জনপ্রিয় একটি ফল ‘পিছফল’। খুব সুস্বাদু এই পিছফল। দেখতে অনেকটাই লিচুর মতো। তবে পিছফলের আকৃতি লিচুর চেয়ে সামান্য ছোট। লিচু টক মিষ্টি হলেও পিছফল মিষ্টি জাতীয় ফল। লিচুর মৌসুম শেষ হতেই থোকা থোকা পিছফল গাছে ঝুলতে থাকে।

জানা গেছে, জুলাই মাস জুড়ে স্থানীয় বাজারগুলোতে পাওয়া যায় পিছফল ফলটি। সারাদেশে তেমন একটা না পাওয়া গেলেও ঢাকার দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলায় অনেক আগে থেকেই ফলটি পাওয়া যায়। তাই এখানকার মানুষের কাছে পিছফলের কদর অনেক বেশি। বাণিজ্যিকভাবে পিছফলের চাষ না হলেও নিজ পরিবার এবং আত্মীয়-স্বজনকে দেয়ার পাশাপাশি অনেকে বিক্রিও করে থাকেন স্থানীয় বাজারগুলোতে। পিছফলের ব্যাপক চাহিদা থাকায় মৌসুমী ব্যবসায়ীরা গাছ কিনে ফল বিক্রি করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন। যে কারণে ব্যবসায়ীরা বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে এ ফলের গাছ কিনে থাকেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, দোহার উপজেলার পালামগঞ্জ বাজারের পাশেই বিশাল আকৃতির একটি পিছফল গাছ সবার নজর কেড়েছে। স্থানীয়রা বাজারের পাশে এতো বড় গাছ দেখে রীতিমতো অবাক হচ্ছেন ফল পাকা শুরু হলে প্রায় ৩০ দিনের মতো গাছে থাকে। এর মধ্যেই গাছ থেকে ফল সংগ্রহ করতে হয়।

আরো জানা গেছে, সম্প্রতি ঢাকার ব্যবসায়ীরাও দোহার-নবাবগঞ্জ উপজেলা থেকে ফল সংগ্রহ করে বিক্রি করছে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়। পিছফল স্তন্যপায়ী প্রাণী বাদুরের প্রিয় খাবার। তাই সন্ধ্যা নামার পর বাদুর ফল খাওয়ার জন্য গাছে গিয়ে বসে। তবে ফল রক্ষার জন্য নানা কৌশল অবলম্বন করেন গাছের মালিকরা। কেউ পিছফল রক্ষায় গাছে মশারি দিয়ে ফল ঢেকে রাখেন। আবার কেউ কাপড় কিংবা পলিথিন দিয়ে বেঁধে রাখেন। আবার গাছের মধ্যে শব্দযন্ত্র বেঁধে দড়ি টেনে বাদুর তাড়িয়ে থাকেন।

জয়পাড়া বাজারের মৌসুমী ফল ব্যবসায়ী আব্দুল কাদের বেপারী বলেন, আমি সারা বছর অন্য কাজ করি। কিন্ত পিছফলের চাহিদা থাকায় বছরের এই সময়টা পিছফল বিক্রি করি। বিভিন্ন এলাকায় গাছে ফল আসার পর মালিকের কাছ থেকে আমরা গাছ কিনে নিই। পরে পরিপক্ক হলে তা বাজারে বিক্রি করি।

নবাবগঞ্জ বাজারের ফল ব্যবসায়ী রফিক মোল্লা বলেন, আমি ২০-২৫টি গাছ কিনে রাখছি। বাজারে পিছফলের চাহিদা আছে অনেক। আশা করি ভাল ব্যবস্যা করতে পারবো এবার।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
দোহার ও নবাবগঞ্জ,পিছফল
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close