বিনোদন প্রতিবেদক

  ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০

পথচলার রজতজয়ন্তীতে মনির খান

মনির খান, তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী। তিনি ঝিনাইদহের সন্তান। আজ থেকে ২৫ বছর আগে ২৫ নভেম্বর বিউটি কর্নার থেকে তার প্রথম একক গানের অ্যালবাম ‘তোমার কোনো দোষ নেই’ প্রকাশিত হয়েছিল। সেই হিসেবে আজ পেশাগতভাবে সংগীতজীবনের ২৫ বছর অর্থাৎ রজতজয়ন্তী পূর্ণ করছেন তিনি। আর এ উপলক্ষে আজকের দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে ব্যতিক্রমধর্মী এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন মনির খান। আজ বিকাল ৩টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় তার প্রথম অ্যালবামের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সম্মাননা জানানো হবে। মনির খানের জীবনের বিশেষ এই দিনে তার পাশে থেকে তার কাছ থেকে সম্মাননা গ্রহণ করবেন ‘তোমার কোনো দোষ নেই’ অ্যালবামের গীতিকার, সুরকার মিল্টন খন্দকার, সংগীতায়োজক ফরিদ আহমেদ, বিউটি কর্নারের কর্ণধার নূরুল্লাহ মিলু, সাউ-ইঞ্জিনিয়ার পান্না আজম ও পোস্টার ডিজাইনার জহুরুল হক। সম্মাননা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত গীতিকবি গাজী মাজহারুল আনোয়ার, মানাম আহমেদসহ অনেকে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করবেন অধরা জাহান। মনির খান বলেন, ‘যাদের নাম বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে তারা ছাড়াও আরো অনেককে আমি খুঁজেছি, যারা আমার প্রথম অ্যালবমাটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন। যেমন যে ছেলেটি গান রেকর্ডিংয়ের সময় মাইক্রোফোনটা ধরতে সহযোগিতা করেছিল, যারা আমার পোস্টার রাত জেগে জেগে ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় লাগিয়েছিল। কিন্তু তাদের পাইনি আমি, তাই কিছুটা কষ্ট তো রয়েছেই। তার পরও আল্লাহর অশেষ রহমতে আমি যতটুকু করতে পারছি, তাতেই সন্তুষ্ট আমি। প্রথম অ্যালবামের জন্য আমি কোনো পারিশ্রমিক পাইনি, তা নিয়ে কোনো দুঃখবোধ ছিল না। কারণ প্রথম অ্যালবামে মানুষের যে ভালোবাসা পেয়েছি, তাতেই আমি আজকের মনির খান হয়ে উঠতে পেরেছি।’ মনির খান জানান, তার ‘মনির খান সংসদ’, ‘মনির খান ফ্যানস টুয়েন্টিফোর’ ও ‘মনির খান সংঘ’ই মূলত এ অনুষ্ঠানের আয়োজক। এদিকে মনির খানের গানে হাতেখড়ি ওস্তাদ রেজা খসরুর কাছে। তার প্রকাশিত অ্যালবামের সংখ্যা ৪৩টি। এখন পর্যন্ত প্রায় ৫০০ সিনেমায় প্লেব্যাক করেছেন। প্রথম প্লেব্যাক করেন ‘সংসার সুখ দুঃখ’ সিনেমায়। দ্বৈত গান তিনি সিনেমায় বেশি গেয়েছেন কনকচাঁপার সঙ্গে। তাদের প্রথম দ্বৈতগান ‘ঈশর আল্লাহ বিধাতা জানেন আমি তোমাকে কতটুকু চাই’। মনির খানের বাবা মো. মাহবুব আলী খান, মা মোছাম্মৎ মনোয়ারা খাতুন। তার স্ত্রী ইতি, দুই সন্তান মৌনতা ও মুহূর্ত।

 

------
 

"

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়