ফরিদপুর প্রতিনিধি

  ১৭ এপ্রিল, ২০২৪

ফরিদপুরের বোয়ালমারী 

ভেটেরিনারি সার্জনকে হামলা দুই ওষুধ প্রতিনিধির

 বোয়ালমারীতে গ্রেপ্তার গ্রাম্য পশুচিকিৎসক হরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস। ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে গ্রাম চিকিৎসা ভুল বলায় কার্যালয়ে ঢুকে ভেটেরিনারি সার্জনকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ওষুধ কোম্পানির দুই প্রতিনিধির (রিপ্রেজেনটেটিভ) বিরুদ্ধে। এ সময় চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করেন তারা।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরে সার্জনের কার্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আইনী পদক্ষেপ নিবেন বলে জানিয়েছেন আক্রান্ত ভেটেরিনারি সার্জন মো. আব্দুল আলীম।

হামলায় অভিযুক্তরা হলেন, গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানির প্রতিনিধি ও বোয়ালমারী পৌরসভার দক্ষিণ কামারগ্রামের বাসিন্দা তরুণ বিশ্বাস ও জেনসন অ্যাগ্রো ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধি দক্ষিণ কামারগ্রামের তুষার আহমেদ। এর মধ্যে তরুণ বিশ্বাসের বাবা হরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের অবসরপ্রাপ্ত তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী (ভিএপি) ছিলেন। অবসর সময়ে গ্রাম্য পশুচিকিৎসক হিসেবে কাজ করেন। কোনো প্রকার চিকিৎসক সনদ না থাকলেও প্রাণীসম্পদ দপ্তরের চাকরির সুবাদে অবসরের পর পশু চিকিৎসা করেন।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর সূত্রে জানা যায়, উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী হরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের কাছে গাভীর ওলানফোলা (ওলান পাকা) রোগের চিকিৎসা করান উপজেলার শেখর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের খামারি জয়নাল শেখ। সম্প্রতি রোগাক্রান্ত ওই গাভী নিয়ে উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালে আসেন তিনি। এ সময় হরেন্দ্রনাথের দেওয়া ব্যবস্থাপত্র দেখে ভুল চিকিৎসার বিষয়ে খামারিকে জানান ভেটেরিনারি সার্জন আব্দুল আলিম। পরে নরেন্দ্রনাথের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন খামারি জয়নাল। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ভেটেরিনারি সার্জনের ওপর হামলা চানান হরেন্দ্রনাথের ছেলে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি তরুণ বিশ্বাস ও তুষার আহমেদ সংঘবদ্ধ হয়ে অতর্কিত এ হামলা চালায় ।


  • নিবন্ধন ছাড়াই ভেটেরিনারি প্র্যাকটিস করায় গ্রাম্য পশু চিকিৎসককে কারাদণ্ড
  • হামলাকারীরা গ্রাম্য চিকিৎসকের ছেলে ও তার সহকার্মী

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী উপজেলা প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ডা. সেলিম হোসেন বলেন, ‘হামলাকারী তুষার আহমেদ ও তরুণ বিশ্বাস ভেটেরিনারি সার্জন আব্দুল আলিমের রুমে ঢুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে করতে তার ওপর আক্রমণ চালান। কিছু বুঝে ওঠার আগে কক্ষের বিভিন্ন আসবাব ভাঙচুর করে আমাদের সবাইকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়ে তারা চলে যান।

জানতে চাইলে তরুণ বিশ্বাস বলেন, ‘ভেটেরিনারি সার্জন ডা. আব্দুল আলিমের সঙ্গে একটু ঝামেলা হয়েছে।’ এ কথা বলেই তিনি মোবাইল ফোনের সংযোগ কেটে দেন। উপজেলা প্রাণিসম্পদ ও ভেটেরিনারি সার্জন আব্দুল আলিম বলেন, ‘সাধারণ মানুষের সেবা করতে এসে ওষুধ রিপ্রেজেনটেটিভদের হাতে এ ধরণের হামলার শিকার হব, ভাবতে পারিনি। আমি শঙ্কিত, ভীত-সন্ত্রস্ত। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নারায়ন চন্দ্র সরকার বলেন, ‘হামলা-ভাঙচুরের বিষয়ে থানায় অবগত করা হয়েছে। সরকারি দায়িত্ব পালনকালে হামলা ও অফিস ভাঙচুরের অভিযোগে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।’

এদিকে খামারি জয়নাল শেখের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে নিবন্ধনহীন হয়েও ভেটেরিনারি প্রাকটিস ও ভুল চিকিৎসার হরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালত পরিচালনা করেন বোয়ালমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান।

জানতে চাইলে বোয়ালমারী ইউএনও মেহেদী হাসান বলেন, ‘নিবন্ধন ও সনদ ব্যতীত ভেটেরিনারি প্র্যাকটিস করার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় এবং অভিযুক্ত ব্যক্তি নিজে স্বীকারোক্তি দেওয়ায় তাকে এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।’

পিডিএস/আরডি

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ফরিদপুর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close