চাঁদপুর প্রতিনিধি

  ০৬ ডিসেম্বর, ২০২৩

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাখ্যা দিলেন মায়া চৌধুরী 

ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার (বীর বিক্রম) পক্ষে নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন তার আইনজীবী।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান এবং চাঁদপুরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ সাইয়েদ মাহবুবুল ইসলামের কার্যালয়ে ওই লিখিত ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন মায়া চৌধুরীর পক্ষের আইনজীবী মো. সেলিম মিয়া। তিনি বলেন, নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যানের নির্দেশ অনুযায়ী নির্ধারিত তারিখে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে অনুসন্ধান কমিটি।

লিখিত ব্যাখ্যায় মায়া চৌধুরী দাবি করেন, তার বিরুদ্ধে নির্বাচন আচরণবিধিমালা ২০০৮-এর ৭ (গ) বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ভিত্তিহীন। গত শনিবার (২ ডিসেম্বর) বড় ছেলে মৃত্যুর আগে থেকেই তিনি চিকিৎসা ও অন্যান্য কাজে ব্যস্ত ছিলেন। তাই গত শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) মটরসাইকেল নিয়ে হুমকি-ধমকির বিষয়ে তিনি অবগত নন।

মায়া চৌধুরী বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী এম ইসফাক আহসান নির্বাচনী এলাকায় তার রাজনৈতিক ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও হয়রানির উদ্দেশ্যে মিথ্যা অভিযোগ এনেছেন। তবে নির্বাচনী বিধিমাল অনুসরণ করে সব প্রকার নির্বাচনী কর্মকাণ্ড করার ক্ষেত্রে তার কোনো ব্যত্যয় ঘটবে না।

এর আগে, ৩০ নভেম্বর স্বতন্ত্র প্রার্থী এম ইসফাক আহসান লিখিত অভিযোগ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার (৪ ডিসেম্বর) নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে আচরণ বিধি লঙ্ঘন বিষয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য নির্দেশ করেন।

নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান সাইয়েদ মাহবুবুল ইসলাম জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থীর অভিযোগের ভিত্তিতে আচরণ বিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে আমরা ব্যখ্যা চেয়েছি। মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া লিখিত ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তদন্ত পূর্বক বিষয়টি নির্বাচন কমিশনে প্রতিবেদন পাঠানো হবে।

পিডিএস/জেডকে

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
চাঁদপুর,মায়া চৌধুরী,নির্বাচন,আচরণবিধি,ব্যাখ্যা
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close