চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

  ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩

মাইক্রোবাসে তুলে ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা

গণপিটুনিতে চালক আহত

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে মাইক্রোবাসে তুলে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গাড়ির চালককে গণপিটুনি দেন স্থানীয়রা। ঘটনাস্থল থেকে ওই চালককে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক চিলমারী হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। তবে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওই তাকে সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন দায়িত্বরত চিকিৎসক।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (৩ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার রমনা মডেল ইউনিয়নের রমনা ঘাট এলাকায়।

আটক চালকের নাম মাসুদ রানা (৪৫)। তিনি কুড়িগ্রাম সদরের পলাশবাড়ী হালমাঝিপাড়া এলাকার মো. ওমর আলীর ছেলে।

ঘটনাটর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হারেছুল ইসলাম।

মামলার এজাহার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রমনা ঘাট এলাকায় বালুর স্তুপের পাশে কালো রঙের মাইক্রোবাস নিয়ে দাড়িয়ে ছিলো চালক মো. মাসুদ রানা। এ সময় পার্শ্ববর্তী রাস্তা দিয়ে ৬ বছরের এক কন্যা শিশু যাচ্ছিলো। তখন দাঁড়িয়ে থাকা লম্পট চালক জোড়পূর্বক শিশুটিকে গাড়ির ভেতরে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। শিশুটির চিৎকারে প্রথমে তার ভাই ও পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে। তাৎক্ষণিক উৎসুক জনতা ওই চালককে আটক করে গণপিটুনি শুরু করে। এ সময় রাস্তায় কর্তব্যরত পুলিশ বিক্ষুব্ধ জনতার হাত থেকে তাকে উদ্ধার করে চিলমারী হাসপাতালে নেয়।

ওসি হারেসুল ইসলাম জানান, খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থল থেকে চালককে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ওই শিশুর বাবা বাদি হয়ে থানায় মামলা করেছেন। এদিকে ঘটনাস্থল থেকে মাইক্রোবাসটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। যার নম্বর- ঢাকা মেট্টো চ-১৫-১৪৩২।

পিডিএস/এএমকে

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close