reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ০৭ জুন, ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র দিয়ে ইউক্রেন হামলা করল রাশিয়ায়

ছবি : সংগৃহীত

ভূখণ্ডে হামলা চালানোর অনুমতি পাওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র দিয়ে রাশিয়ায় হামলা করল ইউক্রেন। ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর মুখপাত্র দিমিত্রো প্লেটেনচুক জানায়, যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর, প্রথমবারের মতো রাশিয়ার দুটি ল্যানসেট ও অরলান ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে।

শুক্রবার (৭ জুন) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

গত ১০ মে খারকিভে নতুন করে হামলা চালায় রাশিয়া। এর পরপরই গত ২৬ ও ২৭ মে ইউক্রেনকে রাশিয়ার ভূখণ্ডে তাদের অস্ত্র ব্যবহারের অনুমতি দেয় ফ্রান্স ও জার্মানি। আর গত ৩০ মে খারকিভে পাল্টা হামলা চালাতে তাদের অস্ত্র ব্যবহারের অনুমতি দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্র জানায়, রুশ ভূখণ্ডে ৩০০ কিলোমিটার রেঞ্জের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তবে ফ্রন্ট লাইন থেকে ৩০০ কিলোমিটার দূরের ক্রিমিয়া থেকে এও ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা যাবে। ফলে মার্কিন অস্ত্রের ব্যবহার রাশিয়ার কয়েকটি এলাকায় নির্ধারিত ছিল বলে মনে করা হচ্ছে, যাতে খারকিভে রুশ হামলা থেকে আত্মরক্ষা করতে পারে ইউক্রেন।

তবে গত সপ্তাহের দুটি হামলা থেকে বোঝা যায়, বিধিনিষেধ তুলেও নেওয়ায় ইউক্রেনকে আরও কার্যকর প্রতিরক্ষার সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

ইউক্রেনের কমান্ডার-ইন-চিফ ওলেক্সান্ডার সিরস্কি বলেছেন, খারকিভ ফ্রন্টে দ্রুত শক্তিবৃদ্ধি হচ্ছে। তবে তিনি এটাও স্বীকার করেছেন যে, পূর্ণমাত্রার অভিযান পরিচালনা বা নিজেদের প্রতিরক্ষায় ইউক্রেনের এই সেনাবাহিনী যথেষ্ট নয়।

তারপরও ইউক্রেন সেনাবাহিনীর ধারণা, রাশিয়ার ১০৩টি ট্যাংক,১৭৭টি সাঁজোয়া যুদ্ধযান এবং ২৮০টি কামানের গোলা ধ্বংস করেছে তারা।

অবশ্য রাশিয়ায় ইউক্রেনের জ্বালানি অবকাঠামোগুলোকে লক্ষ্যবস্তু বানাচ্ছে। গতকাল রাতভর হামলা চালিয়ে ইউক্রেনের দুটি জল বিদ্যুৎকেন্দ্র ও দুটি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র ধ্বংস করেছে তারা।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
অস্ত্র,রাশিয়া
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close