reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ১৭ নভেম্বর, ২০২৩

গাজায় মাহাথিরের হাসপাতাল ধ্বংস

ফাইল ছবি

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ গাজায় তার প্রতিষ্ঠিত চিকিৎসা কেন্দ্র ধ্বংসের অভিযোগ করেছেন। শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) মাহাথির তার এক্সের (সাবেক টুইটার) এক পোস্টে জানান, তার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠিত একটি চিকিৎসা কেন্দ্র ইসরায়েলি বোমা হামলায় ধ্বংস হয়ে গেছে। খবর আলজাজিরা

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে পেরদানা গ্লোবাল পিস ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে গাজার অবরুদ্ধ ফিলিস্তিনিদের জন্য হাসপাতালটি স্থাপন করেন। শুক্রবার তিনি জানান, এই মাসের শুরুতে দক্ষিণ গাজার খান ইউনিসের ডাঃ সিতি হাসমাহ এবং এনায়া ফিজিওথেরাপি সেন্টারটি ধ্বংস করা হয়েছে। মাহাথির বলেন, দক্ষিণে গাজার খান ইউনিসে চিকিৎসা কেন্দ্রটি হামলার কোন কারণ ছিল না।

এর আগে, ইসরায়েলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল গাজার দক্ষিণের কোন স্থাপনায় হামলা চালানো হবেনা। কিন্তু ইসরায়েল উত্তর গাজার মত দক্ষিণেও একই অমানবিক হামলা চালাচ্ছে। উল্লেখ্য ইতোমধ্যে দক্ষিণাঞ্চলে গাজার সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির আল জাবালিয়ায় হামলা চালিয়ে অন্তত ১১ জন হত্যা করেছে।

মাহাথির তার এক্স পোস্টে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, হাসপাতাল এবং বাসস্থানে বোমা হামলা প্রমাণ করেছে ইসরায়েল ইচ্ছাকৃতভাবে বেসামরিক স্থাপনাগুলোতে হামলা চালাচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগেও ৩১ অক্টোবর ও ১ নভেম্বর জাবালিয়া শরণার্থীশিবিরে ব্যাপক বোমা হামলা চালায় ইসরায়েল। দুই দিনের হামলায় অন্তত ১৯৫ জন নিহত ও ৭৭ জন আহত হন। সে সময় জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক কর্মকর্তারা এই শিবিরের বিরুদ্ধে হামলা 'যুদ্ধাপরাধ' হতে পারে বলে মত দিয়েছিলেন।

এর আগে হামাসের ৭ অক্টোবরের হামলায় ইসরায়েলে প্রায় এক হাজার ২০০ জন নিহত হন বলে জানিয়েছে ইসরায়েল। তবে এরপর থেকে টানা হামলা চালিয়ে গাজায় প্রায় সারে ১১ হাজারের অধিক ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি বাহিনী।

পিডিএস/এমএইউ

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
শরণার্থীশিবির,গাজা,ইসরায়েল,বোমা হামলা,মাহাথির মোহাম্মদ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close