reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ১৭ মে, ২০২৪

মিষ্টির থাপড়াতে চাওয়া নিয়ে মুখ খুললেন জয়

চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ের প্রসঙ্গে সম্প্রতি উঠে এসেছে আরেক অভিনেত্রী মিষ্টি জান্নাতের নাম। সেই প্রসঙ্গকে কেন্দ্র করে অভিনেত্রীর সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে গেছেন অভিনেতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়।

সম্প্রতি মিষ্টি জান্নাতকে নিয়ে জয় বলেছেন, ‘ওই মেয়ে ভাইরাল হতেই শাকিবকে জড়িয়ে এসব কথা বলছেন। শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে হলেও সেটা টিকবে না।’

বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছেন মিষ্টি জান্নাত। তিনি বলেন, ‘সে বললো, ওই যে একটা মেয়ে। এটা কেন বলবে? আমি কষ্ট পেয়েছি। যদি সে সিনিয়র না হতেন, তাহলে তাকে ধরে থাপড়াতাম। তার প্রোগ্রামে গেলেও এমন করে। অফস্ক্রিনে চুমু দেওয়ার চেষ্টা করে। আমার কাছে সেসবের ভিডিও আছে। সে অনেক নেগেটিভ কথা বলে।’

শাহরিয়ার নাজিম জয়। এক গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি এ সমস্ত কিছুকে পাত্তা দেই না, আমার হাসি পায় । কারণ কেউ যদি নিজের দিকে অ্যাটেনশন তৈরি করতে চায় তখন সে অসংলগ্ন ও উল্টাপাল্টা কথা বলে। আর এটা খুব সহজ কোন বিখ্যাত ব্যক্তিকে নিয়ে উল্টাপাল্টা কথা বললে তার দ্রুত প্রচার এবং প্রসার হয়।

শাহরিয়ার নাজিম জয় জানান, তিনি মনে করেন যা কিছু হচ্ছে এটা একটা সাময়িক উত্তেজনা। আর ফেসবুক উত্তেজনা ছাড়া চলতে পারে না। আমার নিজেরাও উত্তেজনা তৈরি করি । সে যা বলেছে (মিষ্টি জান্নাত) তা উত্তেজনা তৈরি করার জন্য বলেছে। আর তার নাম আমি নেই নাই ওই যে একটা মেয়ে বলেছি এটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত ছিল না। কারণ কথা বলতে গেলে অনেক সময় অনেকের কথা কোথাও না কোথাও আটকে যায়। হয়ত হঠাৎ করে একটা চেনা নাম মনে আসে না এটা বড়ো কোন ভুল না।

মিষ্টি জান্নাতের বিষয়ে এ অভিনেতা বলেন, যাক ওই যে একটা মেয়ে বলাতে তার মনে দুঃখ লেগেছে। দুঃখ থেকে সে নিজের উত্তেজনার জন্য বক্তব্য দিয়েছে। দিনশেষে সে বুঝবে তার এ কাজটা ঠিক হয়নি। কিংবা সে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবেই আলোচনায় আসার জন্য এ কাজটি করেছে। এটি তার ব্যক্তিগত ইচ্ছা। মোবাইলের এ যুগে তার এই ইচ্ছাকে আমাদের বরণ করে নেওয়া ছাড়া আর উপায় নেয়।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের বিষয়ে তিনি জানান, অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার পর একজন শিল্পী যথেষ্ট সময় পায় অনুষ্ঠানটি প্রচার না করবার অনুরোধ করবার জন্য। সেটি না করে অনুষ্ঠান প্রচারের দীর্ঘ সময় পরে সেই অনুষ্ঠান নিয়ে কথা বলা মানে নিজেকে আলোচনায় নিয়ে আসা। এটি এমন কোনো বিষয় না যে আমাকে বক্তব্য দিয়ে তা সংশোধন করতে হবে।

তিনি বলেন, কাজের প্রয়োজনে বিভিন্নরকম প্রশ্ন করি। তাতে অনেক সময় দর্শক বিব্রত হয়। কিন্তু একটি কথা আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই আমি যে ইন্টারভিউগুলো নিয়ে থাকি তার ৯৯ ভাগ ইন্টারভিউ রেকর্ডেড। এডিট হয় এরপর তা প্রচার হয়। কারও কোনো অভিযোগ থাকলে আমরা সেই পর্বগুলো সংশোধন করি, কিংবা প্রচার করি না। অজস্র উদাহরণ আছে আবার ব্যতিক্রম দুএকটা ঘটনাও রয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close