উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

  ০৮ জুলাই, ২০২৪

পৌর হাট ও বাজারে কাদা পানি, ভোগান্তি

উল্লাপাড়ায় পৌর হাট ও বাজারে জমে আছে পানি -প্রতিদিনের সংবাদ

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় পৌর হাট ও বাজারের চলাচল পথগুলোয় এখন কাদা পানি জমে থাকছে। উপজেলা সদরের হাট ও বাজারটি থেকে সহজে পানি নিস্কাশন হতে না পারায় বৃষ্টি হলেই এমন দশা দেখা দেয়। বাজার সদাই করতে বেশ কষ্ট করে চলতে হয় অভিযোগ ক্রেতা ও স্থানীয়দের।

জানা গেছে, উল্লাপাড়া উপজেলা সদরের হাট ও বাজারটি প্রায় আড়াই যুগ ধরে পৌরসভার অধীনে। পৌরসভা থেকে যথাযথ নিয়মে হাট ও বাজারটি বাৎসরিক ইজারা দেওয়া হয়। সপ্তাহের দুইদিন শুক্রবার ও সোমবার হাটবার। আর প্রতিদিনই ভোর থেকে শুরু করে রাত প্রায় ৮টা পর্যন্ত বাজার খোলা থাকে।

তবে সরেজমিনে দেখা গেছে, গত দুইদিনে বিকেলে হাট ও বাজারের মুরগী পট্রি থেকে মনোহারী দোকান ও কাচা বাজার মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া চলাচল পথের বেশি অংশ জুড়ে কাদা পানি। এছাড়া ভেতরের বেশি কয়েকটি চলাচল পথে কাদা পানি জমে আছে। আবার চাউল পট্রি, গুড় পট্রি পাকা সড়কের ওপর কাদা জমে থাকা দেখা গেছে। এ সড়কের পাশ হয়ে পৌরসভা থেকে নতুন একটি ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে।

আরো দেখা গেছে, পৌর কিচেন মার্কেটের পাশের মুরগী পট্রি হয়ে চলাচল পথে কয়েকজনকে কাদা পানিতে চলাচল করতে দেখা গেছে। এরা বাজার করতে এসেছিলেন। এদের মধ্যে আবু সামা, আবু হানিফ জানায়, বাজারে চলতে বেশ কষ্ট করতে হচ্ছে। কবে যে দুর্ভোগের অবসান হবে প্রশ্ন তাদের।

একাধিক কাচা তরিতরকারী ও মনোহারী দোকানী জনায়, বৃষ্টি হলে সহজে পানি বের (নিস্কাশন) হতে পারে না বলেই চলাচল পথে এভাবে কাদা পানি জমে থাকে। দোকানের সামনে কাদা পানি জমে থাকায় খদ্দের কম আসেন।

পৌর মেয়র এস এম নজরুল ইসলাম জানান, পৌর হাট ও বাজারের উন্নয়নে এরই মধ্যে চাউল পট্রি থেকে একেবার নদী অবধি ড্রেন এবং ঘোষগাতী চার মাথা থেকে চাউল পট্রি অবধি বেশ চওড়া করে পাথর ঢালাই সড়ক নির্মাণ করা হয়েছে। এখন মুরগী পট্রি থেকে কাচা তরিতরকারী বাজার ও কাপড় পট্রি এবং কলা পট্রি হয়ে একটি ড্রেন নির্মাণ করা হবে। এর পেছনে প্রায় চল্লিশ লাখ টাকা ব্যয় ধরে টেন্ডার আহবানের প্রক্রিয়া করা হচ্ছে। চলাচল পথগুলো পাকা করা হবে। কম সময়ে দুর্ভোগ কষ্টের হবে অবসান। তখন কাদা পানি জমবে না। আর বাজার করতে এসে কষ্ট করে চলতে হবে না।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া,বাজার,পৌর হাট
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close