লাকসাম-মনোহরগঞ্জ (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

  ১৬ জুন, ২০২৪

মনোহরগঞ্জে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

কেউ মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকলে সে যে দলেরই হোক ছাড় দেওয়া হবে না

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে মনোহরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এমপি বলেছেন, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ হবে একটি আদর্শের সংগঠন। এ সংগঠনের কেউ কখনো সন্ত্রাস চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িত হবে না। কেউ মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকলে সে যে দলেরই হোক না কেন, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে রবিবার (১৬ জুন) কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম আরো বলেন, দরবার বা সালিশের নামে কারো কাছ থেকে টাকা নেওয়া যাবে না। অন্যায়ভাবে কারো ক্ষতি করা যাবে না। কেউ বিপদে পড়লে তার সহযোগিতার জন্য যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, আমি মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদেরকে ভালোবাসি। এই দলের জন্য যাদের ত্যাগ আছে তাদের অবদান কখনো ভুলবো না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে সবাইকে কাজ করতে হবে। স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনন্তকাল মানুষের মাঝে বেঁচে থাকবেন। তাঁর গৌরবোজ্জল ইতিহাস মানুষকে জানতে হবে। স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হবে। যখনি আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসে এদেশের উন্নয়ন হয়। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, আমি আপনাদের সন্তান। আমি অন্যায়ের সঙ্গে কখনো আপস করিনি। সততার সঙ্গে আমার এলাকার উন্নয়ন করেছি। আমি এমপি নির্বাচিত হওয়ার আগে লাকসাম পৌরসভার বাইরে ১ কিলোমিটার পাকা রাস্তা ছিলো না। এখন এই এলাকায় ১৫০ কিলোমিটার পাকা রাস্তা নির্মাণ করেছি। ২০১৮ সালে এমপি হওয়ার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন। তাঁর নির্দেশনা মোতাবেক আমি আমার মন্ত্রণালয় পরিচালনা করেছি। এবারও এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে দ্বিতীয় মেয়াদে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন। এতো বড় মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি আমি সব সময় আপনাদের খোঁজ-খবর রাখি। আমি আমার নির্বাচনী আসনে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজদেরকে কখনো ছাড় দেইনি। মাদকের বিরুদ্ধে আমার অবস্থান জিরো টলারেন্স। লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলায় বহু উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করা হয়েছে। অচিরেই অসমাপ্ত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করা হবে৷

উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক দেওয়ান জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্ব ও উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক কামাল হোসেনের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী। ভাইস চেয়ারম্যান মো. আমিরুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিরিন আক্তার মুক্তা, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক কামাল হোসেন, জিয়াউর রহমান শাহিন জিয়া, মাসুদ আলম, জানে আলম, মহি উদ্দিন, যুবলীগ নেতা কামাল হোসেনসহ আরো অনেকে।

এরপর মন্ত্রী উপজেলা ছাত্রলীগের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুজ্জামান শামীম ও সভা সঞ্চালনায় ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বিপ্লব। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। পরে সিরডাপ গভর্নিং কাউন্সিল এর সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এমপিকে মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও জন প্রতিনিধিদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

পিডিএস/এমএইউ

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
মনোহরগঞ্জ,স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী,মো. তাজুল ইসলাম
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close