চট্টগ্রাম ব্যুরো

  ১৫ জুন, ২০২৪

ভূমি সেবাগ্রহীতাদের সঙ্গে নিজের মা-বাবার মতো ব্যবহার করতে হবে

চট্টগ্রাম নগরীর জিমনেশিয়াম হলে ভূমিসেবা সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠানে শুক্রবার প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি। ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

ভূমি সেবাগ্রহীতাদের সঙ্গে অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে, নিজের মা-বাবার মতো ব্যবহার করতে হবে, কোনোভাবেই মেজাজ হারানো যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি।

তিনি বলেন,‘যাদের ভূমি আছে বা ভূমি ক্রয়-বিক্রয় করলে ভূমির নিবন্ধনের পাশাপাশি বিদ্যমান দখলে কে আছে, ভূমি কর কে দেবে- এসব বিষয় সহজ করার জন্য ভূমি মন্ত্রণালয়ের নিয়মনীতি অনুযায়ী বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। উদ্যোগগুলো অনুসরণপূর্বক জেলা প্রশাসন দায়িত্বটুকু পালন করে। সেবাগ্রহীতাদের সঙ্গে অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে নিজের মা-বাবার মতো ব্যবহার করতে হবে, কোনোভাবেই মেজাজ হারানো যাবে না।’

গত শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন জিমনেশিয়াম হলে সপ্তাহব্যাপী ভূমিসেবার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় ও জেলা প্রশাসন আয়োজনে ভূমি সেবাসপ্তাহের এবারের প্রতিপাদ্য, ‘স্মার্ট ভূমিসেবা,স্মার্ট নাগরিক।’

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) আরো বলেন, ‘ভূমি ব্যবস্থাপনা সহজীকরণের জন্য সরকার একটি সময়োপযোগী উদ্যোগ নিয়েছে। ভূমি ব্যবস্থাপনায় ডিজিটালাইজেশনের কারণে আমরা এখন ভূমি অফিসে না গিয়ে ঘরে বসেই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অনলাইনে খাজনা দান, ই-নামজারীর আবেদন, ভূমির অবস্থানসহ ভূমি সংক্রান্তে সব ধরণের সেবা গ্রহণ করছি।’


  • ঘরে বসেই ফোনের মাধ্যমে অনলাইনে ভূমি সংক্রান্ত সব সেবা
  • ভূমি কার্যালয়ে কেউ অপকর্মে জড়িত হলে আইনগত ব্যবস্থা
  • ভূমি ব্যবস্থাপনা সহজীকরণের জন্য সময়োপযোগী উদ্যোগ সরকারের

সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান বলেন, ‘ভূমি সেবায় সততা, সচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বজায় রেখে সেবা দিতে হবে। উপজেলা ভূমি কমিশনাদের প্রতি নির্দেশনা থাকবে, এসি ল্যান্ড বা ভূমি অফিসের কেউ যেন কোনো ধরণের অপকর্মের সঙ্গে জড়িত না থাকে।’ জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন জেলা প্রশাসক।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আরও বলেন, ‘ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা যাতে সহজেই ক্ষতি পূরণের চেক পায়, তা নিশ্চিত করা ও সেবা গ্রহণকরীদের দিক বিবেচনা করে ইমোশনটাকে গুরুত্ব দিতে হবে। ভূমি সংক্রান্তে সেবা নিতে আসা কোনো নাগরিক যাতে ধরনের হয়রানির শিকার না হয়, সেই দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।’

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের সভাপতিত্বে ভূমিসেবা সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন জ্যেষ্ঠ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাজীব হোসেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আব্দুল মালেক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (ভূমি অধিগ্রহণ) তানভীর আল-নাসীফ। এতে চট্টগ্রাম বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তা, মহানগরীর সব সহকারী কমিশনার (ভূমি), ভূমি সহকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ভূমি সেবাগ্রহীতা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close