ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

  ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২

ধামরাইয়ে স্ত্রী খুনের ১৩ দিন পর স্বামী আটক

প্রতীকী ছবি

ঢাকার ধামরাইয়ে স্ত্রী জুলেখা বেগম হত্যার ১৩ দিন পর তার স্বামী কহিনুর ইসলাম ফকিরকে (৬২) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৪ এর একটি দল। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) রাতে মানিকগঞ্জের সিংগাইর থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। নিহত জুলেখা ধামরাই উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের ফোর্ডনগর এলাকার কহিনুর ইসলামের স্ত্রী।

র‌্যাব জানায়, কহিনুর ইসলাম ফকিরের বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার একটি মামলা হয়। কহিনুর সেই মামলা থেকে গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য আত্মগোপন করেছিল। ঘটনার ১৩ দিন পর মানিকগঞ্জের সিংগাইর থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। রোববার (৪ ডিসেম্বর) সকালে কহিনুর ইসলাম ফকিরকে থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব।

র‌্যাব-৪ এর লে. কমান্ডার মোহাম্মদ রাকিব মাহামুদ খান (সিপিসি-২) প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, ২০ নভেম্বর ধামরাইয়ের কুল্লা ইউনিয়নের ফোর্ডনগর এলাকায় কহিনুর তার নিজ বাসায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী জুলেখাকে ইট দিয়ে থেতলে হত্যা করে কৌশলে পালিয়ে যায়। এরপর ধামরাই থানা পুলিশ জুলেখার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় জুলেখার বড় ভাই আব্দুল কাদের বাদী হয়ে ধামরাই থানায় কহিনুরকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ধামরাই,স্ত্রী খুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close