রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

  ০২ ডিসেম্বর, ২০২২

নিখোঁজের ৪ দিন পর নালায় মিলল গৃহবধূর লাশ

সন্তান কোলে বৃহবধু রোকসানা। ফাইল ছবি 

রাউজানের তিন সন্তানের জননী গৃহবধু রোকসানা আকতার নিখোঁজ হয়েছেন দাবি করে গত ২৮ নভেম্বর থানা জিডি করেছিলেন স্বামী। এই ঘটনার ৪দিন পর ১ ডিসেম্বর বিকালে তার অর্ধগলিত লাশ পাওয়া গেল বাড়ির পিছনে নালার ভিতর।

রোকসানা রাউজান উপজলার বাগোয়ান ইউনিয়নের পাঠান পাড়া গ্রামের দিন মজুর মোহাম্মদ আজমের স্ত্রী। স্থানীয় মেম্বার উদয় দত্ত অর্ক বলেছেন, গত ২৭ নভেম্বর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। ২৮ নভেম্বর থানায় পরিবারের পক্ষে জিডি করা হয়েছিল।

ননদ ফেরদৌস আকতার বলেছন, ভাবী নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ পেয়ে শাশুড় বাড়ি থেকে আমি অবুঝ ভাইপোদের দেখবাল করতে বাপের বাড়িতে এসেছি। এরমধ্যে বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) বিকালে ঘরের পিছনে বাথরুমে যাওয়ার সময় নাকে দুর্গন্ধ পেলে নালার ভাঙ্গা অংশে দেখি মরদেহ। এই ঘটনা আমার মামা ইসহাককে জানালে তিনি স্থানীয় ইউপি সদস্যকে খবর দেন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ এসে রাতে লাশ উদ্ধার করে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমার মা ও ভাইকে সাথে নিয়ে যায়।

জানা যায় রোকসান রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পোমরা ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়াডের সৌদিয়া প্রজেক্ট এলাকার মোহাম্মদ মফিজের মেয়ে। ৮ বছর আগে আজমের সাথে তার বিয়ে হয়।

নিহতের ছোট বোন তাহমিনা আকতার অভিযোগ করে বলেছেন তার বোনকে স্বামীর পরিবার পরিকল্পনা করে মেরে নালায় ফেলে দিয়েছে। তিনি এই হত্যাকান্ডের বিচার দাবি করেন।

লাশ উদ্ধার করতে আসা ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা রাউজান থানার ওসি আবদুল্লাহ আল হারুন বলেছেন, ধারণা করা হচ্ছে এটি হত্যাকাণ্ড। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে। এই ঘটনার কারণ উদঘাটন ও জড়িতদের চিহ্নিত করতে কাজ করছে পুলিশ।

পিডিএসও/এমএ

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নিখোঁজ,গৃহবধূর লাশ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close