ভোলা প্রতিনিধি

  ২৮ নভেম্বর, ২০২২

১১ বছর পর চরফ্যাশনে উৎসবমুখর পরিবেশে ইউপি ভোট 

ফাইল ছবি

সীমানা জটিলতা কাটিয়ে ১১ বছর পর উৎসবমুখর পরিবেশে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার আসলামপুর ও ওমরপুর ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৮ নভেম্বর) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোটকেন্দ্রগুলোতে বিরাজ করে উৎসবমুখর পরিবেশ।

শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। পাশাপাশি অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রতিটি কেন্দ্রের দায়িত্বে নির্বাচনী মাঠে ছিল পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও কোস্টগার্ড সদস্যরা। এছাড়া মাঠে ছিল নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, মোবাইল টিম ও স্টাইকিং ফোর্স।

দুটি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৭৯ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ২৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

ভোট দিতে আসা আশরাফ আলী, হোসেন পাটোয়ারী ও ফারুক ভূইয়া বলেন, ১১ বছর পরে ভোট দিতে এসেছেন। কিন্তু ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণে বিলম্ব হচ্ছে। ধীরগতিতে ভোট গ্রহণের কারণে সকাল থেকে তারা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। তবে নতুন ভোটার রুবেল হোসেন, রামিম ও হাজেরা বলেন, তারা প্রথমবার ভোট দিতে এসেছেন। ডিজিটাল পদ্ধতি ইভিএমে ভোট দিতে পেরে আনন্দিত তারা।

এদিকে, আসলামপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরে আলম ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কাশেম মেলেটারি একে অপরের বিরুদ্ধে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের দিয়ে ভোটারদের বাধা ও হুমকি দেওয়ায় অভিযোগ করেন।

জেলা নির্বাচন অফিসার শফিকুল ইসলাম জানান, ইভিএম ভোটারদের কাছে নতুন হওয়ায় ভোটদানে তাদের একটু বিলম্ব হচ্ছে। ভোটারদের ইভিএম বিষয়ে সচেতন করেছিলেন তারা।

আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার মো. আলাউদ্দিন জানান, ভোটারদের ইভিএম বিষয়ে সচেতন করেছি। ভোটাররা উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়েছে। তবে ইভিএম ভোটারদের কাছে নতুন হওয়ায় ভোটদানে তাদের একটু সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ভোট,ইউপি নির্বাচন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close