কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

  ১৩ অক্টোবর, ২০২২

এক ঘণ্টার ইউএনও স্কুলছাত্রী জুতিকা

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

‘ঘুমিয়ে আছে শিশুর পিতা, সব শিশুরই অন্তরে।’ আজকের শিশু এক দিন আগামী সমাজের হাল ধরবে। এটাই হয়ে আসছে যুগে যুগে। তাই যেন বুঝিয়ে দিল মৌলভীবাজারের একটি নির্দিষ্ট কমলগঞ্জের ঘটনা। সেখানে এক ঘণ্টার জন্য প্রতীকী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) দায়িত্ব পালন করেন ৮ম শ্রেণির স্কুলছাত্রী জুতিকা রানী কর।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ‘রিলায়েন্ট উইমেন ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (আরডব্লিউডিও) আয়োজনে ও প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের উদ্যোগে ‘গার্লস টেকওভার’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই দায়িত্ব পালন করে সে।

জুতিকা কমলগঞ্জ উপজেলার দয়াময় সিংহ উচ্চবিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ও তিলকপুর এনসিটিএফের চাইল্ড পার্লামেন্ট সদস্য। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপজেলা অফিসার সিফাত উদ্দিনের উপস্থিতিতে জুতিকা প্রতীকী এ দায়িত্ব পালন করে। এ সময় বাল্যবিয়ে, নারী নির্যাতন ও নিপীড়ন বন্ধ ও মাদকদ্রব্যের নিয়ন্ত্রণ রোধে আলোচনা করা হয়।

এ সময় কমলগঞ্জ উপজেলা অফিসার সিফাত উদ্দিন বলেন, ‘এক সময় শিশুরাই সমাজ ও দেশের বিভিন্ন বড় জায়গায় আসবে, সমাজকে নেতৃত্ব দেবে। এই ধরনের কর্মসূচির মাধ্যমে কিশোরী, কন্যাশিশু অথবা যুব নারীদের নেতৃত্ব প্রদানকারীর ভূমিকা পালন করতে আত্মবিশ্বাসী এবং উৎসাহিত করবে। তিনি এই ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। তাই শিশুদের ছোট থেকেই দেশের জন্য প্রস্তুত করা সবার দায়িত্ব।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক প্রণীত রঞ্জন দেবনাথ, উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিরঞ্জন দেব, ‘আর ডব্লিউ ডিও-ওয়াই মুভ প্রকল্প, কমলগঞ্জের কর্মকর্তা বাবুল কুমার সিংহ, সিলেটের কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম রশিদ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. মহসিন রেজা, এনসিটিএফ তিলকপুরের সভাপতি সুমী রানী কর, স্বেচ্ছাসেবক জয়ন্ত কর প্রমুখ।

ন্যাশনাল চিলড্রেনস টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ) কন্যাশিশুরা সমান অধিকার এবং পর্যাপ্ত সুযোগ পেলে বদলে দিতে পারে তাদের জীবন, সমাজের মানুষদের এমন বিশ্বাস থেকেই ‘গার্লস টেকওভার’ কর্মসূচির উদ্যোগ গ্রহণ করে। এই কর্মসূচির প্রধান উদ্দেশ্য সমাজে মেয়েদের উচ্চপদস্থ বিভিন্ন পদের দায়িত্ব প্রদানের মাধ্যমে তাদের অবস্থান, নেতৃত্ব, সিদ্ধান্ত ও সাফল্য তুলে ধরার আত্মবিশ্বাস তৈরি করা।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই জুতিকাা রানী কর কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত উদ্দিনের নিকট এক ঘণ্টার জন্য দায়িত্ব পালন করার অনুমতির জন্য একটি আবেদনপত্র দেন। এরপর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত উদ্দিনের অনুমতিক্রমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। ইউএনও সিফাত উদ্দিন ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেয় প্রতীকী উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুতিকা রানী করকে। তারপর ওই পদের কী কী দায়িত্ব সেই সম্পর্কে ধারণা দেন তিনি। স্কুলছাত্রী জুতিকা সেই ধারণা থেকে দীর্ঘ এক ঘণ্টা দায়িত্ব পালন করেন। সব শেষে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত উদ্দিন নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন।

এ বিষয়ে ইউএনও হিসেবে প্রতীকী দায়িত্ব পালনকারী জুতিকা রানী কর বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে আমি এনসিটিএফের সঙ্গে কাজ করছি, তবে আমার জন্য এই ধরনের অভিজ্ঞতা নতুন, এক ঘণ্টার প্রতীকী উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করায় নিজেকে খুব গর্বিত মনে করছি। সমাজের নেতৃস্থানীয় জায়গাগুলোতে মেয়েদের অংশগ্রহণের জন্য কাজ করার অঙ্গীকার করছি। ভালো করে পড়াশোনা করে দেশের সেবা করা এমন কিছু কাজের সঙ্গে যুক্ত হতে চাই।’

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
কমলগঞ্জ,ইউএনও,স্কুলছাত্রী জুতিকা
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close