কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি

  ০৫ অক্টোবর, ২০২২

উত্যক্তের প্রতিবাদ স্কুলছাত্রীর বাবার ওপর হামলা

ছবি: সংগৃহীত

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করতে গিয়ে বখাটেদের হামলার শিকার হয়েছেন ভুক্তভোগি স্কুলছাত্রীর বাবা। ওই ইভটিজারের নাম এজমুল হক (২৫)। সে উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের পানিয়াল পুকুর পূর্ব ফরুয়াপাড়া গ্রামের এজারুল হকের ছেলে। এজমুলের ঘুষিতে ওই স্কুলছাত্রের বাবার সামনের দাঁত পরে যায়। তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ওই ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে জানা যায়, বিদ্যালয়ে যাতায়াতের সময় এজমুল প্রায় ওই স্কুলছাত্রীকে উত্যক্ত করত। একারণে সে বিদ্যালয় যাওয়া বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি নিয়ে তার বাবা হানিফুল ইসলাম মামলা করার উদ্যোগ নেয়। পরে স্থানীয় শালিসে এজমুল দোষ স্বীকার করে এবং ওই স্কুলছাত্রীকে কোনো উত্যক্ত করবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয়। এ ঘটনার ৩/৪ মাস পর পুনরায় বখাটে ইজমুল ওই স্কুলছাত্রীকে উত্যক্ত শুরু করে। শনিবার সন্ধার পর পুটিমারী শ্মশান বাজারে স্কুলছাত্রীর বাবা উত্যক্তকারী এজমুলের বাবাকে বিষয়টি জানায়। এ ঘটনায় তার ছেলেকে সাবধান করতে বলায় দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে এজমুল ও তার সাঙ্গ-পাঙ্গরা এসে ওই স্কুলছাত্রীর বাবাকে বেদম মারধর করে। এসময় এজমুলের ঘুষিতে ছাত্রীর বাবার নিচের পাটির সামনের দুইটি দাঁত পড়ে যায়। স্থানীয়রা প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে দেয়।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি রাজীব কুমার রায় এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাটি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
স্কুলছাত্রী,কিশোরগঞ্জ,ভটিজিং
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close