রাজবাড়ী প্রতিনিধি

  ০২ অক্টোবর, ২০২২

বাবা হত্যার বিচার চেয়ে রাজপথে শিশু সানজিদা

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে প্রকাশ্য খুন হন সানজিদা আক্তার শৈলীর বাবা শরিফুজ্জামান পলাশ। বাবার হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে শত মানুষের ভিড়ে রাজপথে দাঁড়িয়েছে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া সানজিদা আক্তার শৈলী।

শনিবার (১ অক্টোবর) দুপুরে গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের পূর্ব উজানচর জৈনদ্দিন সরদার পাড়ায় মানববন্ধনে অংশ নেন এলাকাবাসী। ২০১৫ সালের ২১ এপ্রিল শরিফুজ্জামান পলাশে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তিনি উপজেলার উজানচর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জৈয়নদ্দিন সরদার পাড়ার এবি সিদ্দিকের ছেলে।

মানববন্ধনে পলাশের মেয়ে সানজিদা আক্তার শৈলী কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ‘বাবাকে যারা কুঁপিয়ে হত্যা করেছে, আমাকে এতিম করেছে, আমার মাকে বিধবা করেছে আমি তাদের ফাঁসি চাই।’

এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, পলাশ হত্যা মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। বাদী বা তার পরিবারের কাউকে কোন ধরনের হুমকি দিলে বা নিরাপত্তা জনিত সমস্যা হলে অভিযোগের ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২১ এপ্রিল উজানচর ইউনিয়নের দরাপের ডাঙ্গি এলাকায় মরা পদ্মা নদীর পাড়ে প্রকাশ্যে পলাশকে নৃশংসভাবে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পলাশের মা ছকিনা বেগম বাদি হয়ে পরদিন গোয়ালন্দ ঘাট থানায় জিন্দার আলী, জব্বার, নান্নু, জহুরুল, পাসান, আওয়াল, মারফাত, আতিয়ারের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা আরও ২-৩ জনকে আসামি করে হত্যা মামরা করেন। দীর্ঘদিন বিচার প্রক্রিয়া স্থগিত থাকার পর পুনরায় এ হত্যাকান্ডের বিচার কার্যক্রম চালু হয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
শিশু সানজিদা,বিচার,হত্যা,রাজবাড়ী
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close