রংপুর ব্যুরো

  ১৪ আগস্ট, ২০২২

নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে আনতে কাজ করছে সরকার : বাণিজ্যমন্ত্রী 

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের অর্থনৈতিক উন্নয়ন পরিমাপের সূচক বিশ্লেষণে চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টের প্রয়োজনীয়তা অনিস্বীকার্য, তাই শিক্ষার্থীদের চার্টাড অ্যাকাউন্ট্যান্ট বিষয় নিয়ে পড়াশোনায় উদ্বুদ্ধ করতে শিক্ষকদের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ দেখাচ্ছে। বর্তমানে বহির্বিশ্বেও উচ্চতর দক্ষতাসম্পন্ন চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। বিশ্ববাজারে তলের দাম কমেছে, তবে দেশে ডলারের দাম ঊর্ধ্বমুখী থাকায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের ওপর প্রভাব পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের কথা জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

রবিবার (১৪ আগস্ট) রংপুরের একটি হোটেলে আইসিএবি রংপুর আঞ্চলিক অফিস স্থাপন এবং সিএ পেশার গুরুত্ব সম্পর্কে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান।

আইসিএবির প্রেসিডেন্ট মো. শাহাদৎ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ভাইস প্রেসিডেন্ট মোসা. ফউজিয়া হক, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শুভাসিস বোস, কাউন্সিল মেম্বার মো. মনিরুজ্জামান এবং রংপুর ট্যাক্স জোনের অতিরিক্ত কমিশনার মো. মিজানুর আলম বক্তৃতা করেন।

আইসিএবি মূলত বাংলাদেশে পেশাজীবী হিসাববিজ্ঞানীদের জাতীয় সংস্থা, যা দেশের একমাত্র সনদপ্রাপ্ত হিসাববিজ্ঞানী উপাধি দেওয়ার অধিকার রাখে। প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ পাঁচ দশক ধরে কাজ করা আইসিএবির চতুর্থ শাখা হিসেবে রংপুর আঞ্চলিক কার্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হলো। এর আগে এদিকে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, বৈশ্বিক সংকটকে পুঁজি করে গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলন করা হলে সরকার বাধা দেবে না। কিন্তু মানুষকে কষ্ট দিয়ে আন্দোলনের নামে প্রতিহিংসাত্মক কিছু করলে তা দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবে। আমি মনে করি জাতীয় পার্টি, বিএনপি ক্ষমতায় ছিল। তাদের আচারণও গণতান্ত্রিক হওয়া উচিত। তাহলে দেশে গণতান্ত্রিক চর্চাটা অব্যাহত থাকবে। রবিবার সকালে তিন দিনের সফরে রংপুরে এসে নগরীর সেন্ট্রাল রোডের বাসভবনে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলে।

টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা হয়ে যাচ্ছে এ কথাটি সঠিক নয়। রাজনীতির খাতিরে হয়তো কোনো কোনো রাজনৈতিক দল এটি বলছে। আশপাশের অনেক দেশের তুলনায় আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো রয়েছে। এ সময় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, বিশ্ববাজারে ভোজ্য তেলের দাম কমলেও দেশে ডলারের মূল্যবৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে দেশে আমদানিনির্ভর নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েছে। বিশ্ববাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ দাম নির্ধারণে ট্যারিফ কমিশন কাজ করছে। এ ছাড়া বৈশ্বিক বাজারে দাম কমার ফলে দেশের বাজারেও পণ্যের দামের কিছুটা প্রভাব পড়া শুরু করেছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দেশ থেকে যদি ডলার পাচার হয়ে থাকে তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। আমাদের ডলার সংকটের কারণে পৃথিবী জুড়ে ডলারের দাম বেড়েছে তা আমরা বলতে পারি না। আমাদের পাশের দেশ ভারত, পাকিস্তানেও ডলারের মূল্যবৃদ্ধি পেয়েছে। জিনিসপত্র দাম বাড়লে মানুষের কষ্ট হবে। দেশ বেহেস্তে আছে কে বলেছেন আমি জানি না। তবে জীবিত অবস্থায় তো বেহেস্ত পাওয়া যায় না। বেহেস্ত-দোজখ মানুষ মারা গেলে বুঝতে পারে।’

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নিত্যপণ্যের দাম,সহনীয় পর্যায়ে আনতে,কাজ করছে সরকার
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close