শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি

  ১৩ আগস্ট, ২০২২

নিত্যান্দপুরে বর্তমান-সাবেক চেয়ারম্যানের বিরোধ

শেখরা গ্রামে পাল্টাপাল্টি হামলা, ভাংচুর লুট ক্ষতিগ্রস্ত ৩০ বাড়ি 

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

বর্তমান ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের শক্তি প্রদর্শনের বলি হতে হয়েছে ঝিনাইদহের শৈলকুপার শেখরা গ্রামের মানুষদের। উপজেলার নিত্যানন্দপুর ইউনিয়নের নির্বাচনকে ঘিরে এলাকা জুড়ে হামলা-পাল্টা হামলার জের ধরে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে গ্রামের অন্তত ৩০টি বাড়ি। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ২২ জন।

ভুক্তভোগীরা জানান, নির্বাচনের পর থেকেই বর্তমান চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দিন বিশ্বাস ও সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক হোসেনের বিরোধ বাড়তে থাকে। দিনের পর দিন চলতে থাকে তাদের শক্তি প্রদর্শনের লড়াই। গত ৮ ও ৯ আগস্ট এ দ্ব›দ্ব চরম আকার ধারণ করে। তাদের সহিংসতায় মাঝখান থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হন এলাকাবাসী। এলাকায় ব্যাপক হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয় বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। আবারও হামলা হতে পারে- এই আশঙ্কায় বাড়ি ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন অনেকেই।

এদিকে, হামলার ঘটনা নিয়ে একে অপরকে দোষারোপ করছেন বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যান। নিত্যান্দপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দিন বলেন, আমার লোকজন মার খেয়েছে শুধু। তারা এখন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি। অন্যদিকে সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক হাসানের দাবি, ৪ দিন আগে মফিজ উদ্দিনের লোকজন তার সমর্থকদের মারধর করে। এতে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরে বর্তমান চেয়ারম্যান সশস্ত্র বহিরাগতদের এনে এলাকায় লুটপাট-ভাঙচুর চালিয়েছেন।

অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশি টহল অব্যাহত আছে জানিয়ে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পেলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। তবে এ ঘটনায় এখনও কাউকে আটক করেনি পুলিশ, কোনো মামলাও হয়নি।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
শেখরা গ্রামে পাল্টাপাল্টি হামলা,ভাংচুর লুট ক্ষতিগ্রস্ত ৩০ বাড়ি,বর্তমান-সাবেক চেয়ারম্যানের বিরোধ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close