reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ০৭ আগস্ট, ২০২২

খানাখন্দে ভরা মহাসড়কে নারীর সন্তান প্রসব!

ছবি : সংগৃহীত

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলায় এবড়োখেবড়ো সড়কে শেফালী খাতুন (২৮) নামে এক প্রসূতি সন্তান প্রসব করেছেন! শনিবার (৬ আগস্ট) দিবাগত রাত ১টায় ওই প্রসূতির প্রসবব্যথা ওঠে। পরে ভ্যানে করে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে গাড়ির ঝাঁকিতে সড়কেই এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন তিনি।

শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে জামালপুর (নন্দীবাজার)-ধানুয়া কামালপুর-রৌমারী-দাঁতভাঙ্গা সড়কের কুড়িগ্রাম অংশের রৌমারী উপজেলা শহরের ইসলামী ব্যাংকের সামনে পৌঁছালে এ ঘটনা ঘটে।

প্রসূতি শেফালী খাতুন ফরিজল হকের স্ত্রী। তার বাড়ি রৌমারী সদর ইউনিয়নের রৌমারী উত্তরপাড়া গ্রামে।

শেফালী খাতুনের শ্বশুর আজিমুদ্দিন জানান, প্রসবব্যথা উঠলে শেফালী খাতুনকে অটোভ্যানে করে হাসপাতালে নেয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়া হয়। উপজেলা শহরের ইসলামী ব্যাংকের সামনে সড়ক ভাঙাচোরা হওয়ায় গাড়িতে প্রচণ্ড ঝাঁকি লাগে। এ সময় বউমা কন্যাসন্তান জন্ম দেয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে সড়কটি বেহাল পড়ে থাকলেও কারও কোনো নজর নেই। সড়কটি ভালো থাকলে আজ আমার নাতনির জন্ম সড়কে হতো না। আমার ছেলের বউ এখনো অসুস্থ।’

অটোভ্যান চালক আব্দুল খালেক বলেন, ‘এ রাস্তায় গাড়ি চালাবার গেলেই প্রত্যেক দিন গাড়ি নষ্ট হয়। দিনে যা আয় হয়, গাড়ি হারতেই (মেরামত) তা শ্যাষ হয়। আমরা গরিব মানুষ। রাস্তা ভালো না। বাঁচুম কিবা কইরা?’

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও, ভারপ্রাপ্ত) আশরাফুল আলম রাসেল। তিনি বলেন, রাস্তার মাঝে সন্তান প্রসবের বিষয়টি জেনেছি। এতে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন। সড়কের বেহাল দশার বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক)-সহ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মহোদয়কে জানানো হয়েছে। এ ছাড়া কুড়িগ্রাম সড়ক ও জনপদের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলীকেও অনেকবার বলা হয়েছে।

সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘মাটি না পাওয়ার কারণে রাস্তার কাজ বন্ধ রয়েছে। ঠিকাদারকে তাগিদ দেয়া হয়েছে। তারা জানিয়েছেন, ১৫ আগস্ট থেকে কাজ শুরু করবেন।’

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
খানাখন্দে ভরা,মহাসড়ক,সন্তান প্রসব
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close