লক্ষীপুর প্রতিনিধি

  ০২ জুলাই, ২০২২

লক্ষীপুরে অসাধু বীজ ব্যাবসায়ীর বিরুদ্ধে মানববন্ধন

ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

লক্ষীপুরে উচ্চমূল্যে নিন্ম মানের বীজ কিনে সবজি বপন করে ক্ষতিগ্রস্ত চাষীরা অসাধু ব্যাবসায়ীর বিরুদ্ধে মানববন্ধ করেছে।

শনিবার (০২ জুলাই) দুপুরে লক্ষীপুর প্রেস ক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপি এই মানববন্ধন কর্মসূচিতে সদর উপজেলার কালির চর এলাকার শতাধিক চাষী অংশগ্রহন করে। অসাধু বীজ ব্যাবসায়ীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণসহ ক্ষতিপূরণের দাবি জানান সবজি চাষীরা।

মানববন্ধনে চাষিরা অভিযোগ করে বলেন, বাজারের দোকানীরা নিম্মমানের বীজ দামি প্যাকেটজাত করে উচ্চমূল্যে বিক্রি করে তাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। শহরের ভক্তের গলির মাসুদ বীজ ভান্ডার থেকে এসব বীজ কিনে প্রতারিত হয়েছেন চাষীরা। এসব বীজের প্যাকেটের গায়ে আদনান সীড নামের সীল রয়েছে।

এসব প্যাকেটের গায়ে ভাইরাস মুক্ত লিখে চাষীদের প্রলুব্ধ করা হয়। অথচ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মাঠের পর মাঠ ফসল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। আশেপাশের বরবটি-করলা ও শষা ক্ষেতসহ অন্যান্য ফসলের মাঠেও এর প্রভাব পড়ছে। চাষিরা প্রতারক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণসহ সরকারের সহায়তা দাবি করেন।

মাসুদ বীজ ভান্ডারের মালিক মাসুদ দাবি করেন আবহাওয়া জনিত কারণে এমনটি হয়েছে। বীজে কোন প্রতারণা করা হয়নি। তার বীজ প্রক্রিয়াজাত করনের লাইসেন্স রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা কামরুন নাহার জানায়, বিষয়টি কৃষকরা আমাকে জানিয়েছে। মাঠ পরিদর্শন করে প্রতারাণার বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের জানানো হবে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক ড. জাকির হোসেন বলেন, ঢেঁড়স, পেঁপেসহ এ জাতীয় সবজি চাষ করার সময় ভাল জাত এবং ভাল উৎস দেখে ক্রয় করতে হবে। ঢেঁড়সের মাধ্যমে এই ভাইরাসটি ছড়ায়। তাছাড়া ছোট ছোট পোকার মাধ্যমে এক গাছ থেকে অন্য গাছে দ্রুত বিস্তার ঘটায়। এই ভাইরাস একবার ক্ষেতে ছড়িয়ে পড়লে পুরো ক্ষেতের ফসল নষ্ট করে ফেলে। বাজারে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর কারণে কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এসব অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন এই কর্মকর্তা।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
অসাধু,বীজ,ব্যাবসায়ী,মানববন্ধন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close