গাজী মোঃ শাহাদত হোসেন ফিরোজী, সিরাজগঞ্জ

  ২৩ জুন, ২০২২

কমছে যমুনার পানি

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

দুই সপ্তাহ ধরে পানি বৃদ্ধির পর আজ যমুনা নদীর পানি কমেছে। সিরাজগঞ্জের কাজীপুর ও শহর রক্ষা বাঁধ পয়েন্টে গত ২৪ ঘণ্টায় পানি কমেছে। তবে এখনো পানি বিপৎসীমার অনেক ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে বানভাসিদের দুর্ভোগ কাটতে সময় লাগবে আরও কিছু দিন।

জেলার কাজীপুর পয়েন্টে গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনার পানি ৬ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ৫৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনার পানি সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ এলাকায় ৮ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ৪৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শফিকুল ইসলাম।

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, জেলায় শতাধিক বিদ্যালয় বন্যা কবলিত হলেও ৪৩টি বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে কাজিপুরে ৪২টি এবং শাহজাদপুরে ১টি।

গত কয়েক দিন পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জেলার কাজিপুর, সিরাজগঞ্জ সদর, বেলকুচি, চৌহালি ও শাহজাদপুর এই ৫টি উপজেলার ৩৮ টি ইউনিয়নের ৯১০৩টি পরিবারের ৪৪,০৬২ জন মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে বলে জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা আকতারুজ্জামান জানান।

তিনি আরো জানান, বন্যাজনিত কারণে রাস্তা, ব্রিজ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ফসলের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সঠিকভাবে নিরূপণ করা না গেলেও জেলায় ৫৬৫ বর্গ কিলোমিটার এলাকা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে এসব এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

তাছাড়া ওইসব এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ৭৭১ মেট্র্রিক টন চাল, ১৩ লাখ ৮ হাজার ৫শ টাকা মজুদ রাখা হয়েছে। এসব ত্রাণসামগ্রী বিতরণের জন্য স্ব স্ব এলাকার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে দ্রুত ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা চাওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি ১০ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার এবং ১ হাজার বান্ডিল ঢেউ টিনের চাহিদার কথা জানিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
সিরাজগঞ্জ,যমুনা নদী,বন্যা,ত্রাণ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close