নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

  ২৫ মে, ২০২২

নাঙ্গলকোটে সম্পত্তি উদ্ধারে শিক্ষিকার সংবাদ সম্মেলন

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ।

দেড় শতক বাড়ির জায়গা উদ্ধার, রাতে ঘরের চালে ঢিল মারা, রাস্তায় বাহির হলে মেয়েদের ইভটিজিং করাসহ বিভিন্ন হয়রানিমূল কর্মকান্ডের অভিযোগ এনে ইউসুফ নামের এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সহকারী শিক্ষিকা কুলসুম আক্তার। তিনি নাঙ্গলকোট পৌর সদরের আতাকরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ও একই গ্রামের নূর হোসেনের স্ত্রী।

বুধবার (২৫ মে) নাঙ্গলকোট স্থানীয় একটি অফিসে এ সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তার স্বামী নূর হোসেন একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তিনিও শিক্ষাগতা পেশায় আছেন। দু'মেয়ে নিয়ে তাদের সংসার জীবন। তিনি বাড়িতে না থাকায় প্রতিবেশী ইউছুফ ২০১৭ তার বাড়ির গুরুত্বপূর্ণ কাগজ ও দলিলপত্র নিয়ে যায়। যা নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট অভিযোগও রয়েছে। চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি মাসে তার জায়গায় একটি বিল্ডিং ঘর তৈরি করতে গেলে ওই জায়গার কাগজপত্র নেই বলে কাজ বন্ধ করেন দেন ইউছুফ। এতে রড, সিমেন্ট ও বালুসহ বিভিন্ন মালামাল নষ্ট হয়ে প্রায় ৯-১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। পরে পৌরসভা মেয়ের আব্দুল মালেকের মাধ্যমে তা মীমাংসা করেন। সে অনুযায়ী ইউছুফের নিকট আরও দেড় শতক জায়গায় পাওনা হই। ওই জায়গা না দিয়ে উল্টো রাতের আন্ধারে তার ঘরের চালে ঢিল মারে। তার মেয়েরা রাস্তা বাহির হলে বিভিন্ন গালমন্দ করে ইভটিজিং করে। এতেও ক্ষান্ত হয়নি ইউছুফ।

সর্বশেষ গত শনিবার বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে নিয়ে তার স্বামী নূর হোসেনকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে দুই লাখ টাকা নিয়ে যায়। এবং বাড়ি ছেড়ে দেয়ার জন্য বিভিন্ন হুমকি দুমকি দিয়ে আসছে ইউছুফ। তিনি বর্তমানে তার পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন। পাশাপাশি উপজেলা প্রশাসনসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট এ ঘটনার সুস্থ বিচারের দাবি জানান। একজন শিক্ষক পরিবারের উপর কেন এতো জুলুম নির্যাতন। আমরাকি শান্তিতে একটু বসবাস করতে পারবো না। এ সময় সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তার স্বামী নূর হোসেন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নাঙ্গলকোট,সম্পত্তি উদ্ধার,শিক্ষিকা
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close