মো. আবু সাইদ খোকন, আমতলী (বরগুনা)

  ১১ মে, ২০২২

আমতলীতে ‘অশনি’র প্রভাবে ব্যাপক বর্ষণ, রবিশষ্য নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় কৃষক

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ।

বরগুনার আমতলীতে ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে ভারী বৃষ্টিপাতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামে মুগডাল, বাদাম, তরমুজ ধানসহ বিভিন্ন ফসল পানিতে ভাসছে।

ঘুর্ণিঝড় ‘অশনি’মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপের প্রভাবে সোমবার (৯ মে) থেকে ঝড়ো হাওয়াসহ ভারী বর্ষণে আমতলীসহ দক্ষিণাঞ্চলের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে অধিক উচ্চতায় পায়রাসহ ছোটবড় নদ-নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ভারী বৃষ্টিতে বোরোধানসহ রবিশষ্য ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

আমতলী সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ আমতলী গ্রামের কৃষক মো. বেল্লাল জানান, গত দিন থেকে ঘুর্ণিঝড় ‘অশনি’ এর প্রভাবে শুরু হওয়া ভারী বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ার কারণে রবিশষ্যের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

হলদিয়া ইউনিয়নের পূর্বচিলা গ্রামের আলম মিয়া বলেন, ঘুর্ণিঝড় ‘অশনি’ এর কারণে টানা ভারী বৃষ্টিতে মুগডাল ও বাদাম ও মিষ্টি আলু ক্ষেতের ব্যাপত ক্ষতি হয়েছে। এ ছাড়াও অনেক মাছের ঘের ও পুকুর তলিয়ে গেছে।

আমতলী উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, এবছর উপজেলায় ৯ হাজার ৫শ হেক্টর জমিতে মুগডালের চাষাবাদ হয়েছে ঘূর্ণিঝড় অশনির কারণে ভারী বৃষ্টি পাতে প্রায় ১০০০ হেক্টর মুগডালের ক্ষতি হয়েছে। বাদাম চাষ হয়েছে ১০ হেক্টর জমিতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৫০০ হেক্টর বাদামের। সূর্যমুখী চাষ হয়েছে ২৮০ হেক্টর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৮ হেক্টর ,মরিচ চাষ হয়েছে ৩৮০ হেক্টর ক্ষতি হয়েছে ২০ হেক্টর মিষ্টি আলু চাষ হয়েছে ৪৫০ হেক্টর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ২০ হেক্টর।

আমতলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সিএম রেজাউল করিম বলেন, ঘুর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাবে ভারী বৃষ্টিপাতে রবিশষ্যের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বৃষ্টি আরও দুই-এক দিন অব্যাহত থাকলে যে পরিমাণ ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে তার পরিমাণ দুই তিন গুণ বেড়ে যাবে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আমতলী,ঘুর্ণিঝড়,রবিশস্য
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close