ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি

  ১৬ মার্চ, ২০২২

জামুকা’র তালিকায় নাম নেই, ভাতাহীন ২৯ বীর মুক্তিযোদ্ধা!

ফাইল ছবি

পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বগুড়ার ধুনট উপজেলার ২৯ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার ফেব্রুয়ারি মাসের সম্মানি ভাতার টাকা জমা হয়নি।

ধুনট উপজেলার সোনালী ব্যাংক শাখার হিসাব নম্বরে তাদের সম্মানি ভাতার টাকা আসেনি। এ অবস্থায় ওই সব বীর মুক্তিযোদ্ধার মাঝে চরম হতাশা বিরাজ করছে। অনেকেই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ও উপজেলা প্রশাসনের কাছে গিয়ে এ বিষয়টির খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

তবে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের একটি সূত্র জানিয়েছেন, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) বীরমুক্তিযোদ্ধাদের একটি সমন্বিত তালিকা প্রণয়ন করেছে। সেই তালিকায় যাদের নাম রয়েছে তাদের ব্যাংক হিসেবে সম্মানি ভাতার অর্থ পাঠানো হয়েছে। যাদের নামে ভাতা আসেনি তারা শুধু গেজেট ভুক্ত আছেন। ওই গেজেট জামুকা অনুমোদন দেইনি। এ অবস্থায় তাদের নাম স্ব-স্ব উপজেলায় যাচাই বাছাইয়ের জন্য পাঠালেও ওই যাচাই বাছাই প্রতিবেদনে জামুকা সন্তুষ্ট নয়।

সোনালী ব্যাংকের ধুনট শাখায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বছর খানেক আগে সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ছাড় করা হতো। বর্তমানে সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের যে পদ্ধতিতে বেতন ভাতা ব্যাংক হিসেবে হস্তান্তর করা হয়, বীরমুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানি ভাতাও সেভাবে দেওয়া হয়। ভাতার অর্থ লেনদেন করার জন্য বীরমুক্তিযোদ্ধাদের নামে ব্যাংক হিসাব খোলা রয়েছে।

ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার (ইএফটি) পদ্ধতিতে প্রতিমাসের নির্ধাতির তারিখে ২০ হাজার টাকা করে সম্মানি ভাতা প্রত্যেকের ব্যাংক হিসেবে জমা হয়ে থাকে। মুঠোফোন বার্তার মাধ্যমে হিসেবধারী ভাতার অর্থ জমা হওয়ার তথ্য পেয়ে থাকেন।

সোমবার বেশ কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ব্যাংকে গিয়ে জানতে পারেন, তাদের হিসাব নম্বরে ভাতার অর্থ জমা হয়নি। আবার কয়েকজন বীরমুক্তিযোদ্ধা ভাতার অর্থ উত্তোলন করেছেন। এনিয়ে তাদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

সম্মানী ভাতা না পাওয়া বীরমুক্তিযোদ্ধা বাবর আলী, সোহরাব হোসেন, মোজ্জাম্মেল হক, হাতেমুজ্জামান, নজরুল ইসলাম, মহসিন আলম ও মতিউর রহমানসহ অনেকে জানান, তারা জানুয়ারি মাসের ভাতা পেয়েছেন। কিন্তু ফেব্রুয়ারি মাসের সম্মানি ভাতা তাদের ব্যাংক হিসেবে জমা হয়নি।

প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন সমন্নিত তালিকায় নাম অর্ন্তভূক্তকরণ কাজ সম্পন্ন হলে সকলেই ভাতার অর্থ পেয়ে যাবেন।

ধুনট উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌস আলম বলেন, বিষয়টি আমি জেনেছি। এবিষয়ে খোঁজ খবর নেবো।

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড ধুনট শাখার ব্যবস্থাপক মাহবুবুল আলম বলেন, তার শাখায় ১৯২ জনের মধ্যে ২৯ জন বীরমুক্তিযোদ্ধার ব্যাংক হিসেবে গত ফেব্রুয়ারি মাসের সম্মানি ভাতার টাকা জমা হয়নি। অর্থ জমা না হওয়ার বিষয়ে তিনি কোন চিঠিও পাননি।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ধুনট,জামুকা,ভাতাহীন,মুক্তিযোদ্ধা
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close