ভোলা প্রতিনিধি

  ২৯ জানুয়ারি, ২০২২

ভোলা জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন আজ

উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্যে দিয়ে ভোলা জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন-২০২২ এর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিরতহীন ভোলা জেলা আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ ভবনে এই ভোটগ্রহণ করা হয়। এতে ১৩টি পদের বিপরীতে দুটি প্যানেল ২৬জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।

আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ পক্ষে স্বপন কৃষ্ণ দে ও মাহাবুবুল হক লিটু প্যানেল। অন্যাদিকে জাতীয়তাবাদ আইজীবী ফোরাম মনোনিত ফরিদুর রহমান ও আমিরুল ইসলাম বাছেত প্যানেল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে।

আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ পক্ষে স্বপন কৃষ্ণ দে ও মাহাবুবুল হক লিটু প্যানেল অন্যান্য সদস্যরা হলেন- সহ-সভাপতি উমেশ চন্দ্র মজুমদার ও মো: কামাল উদ্দিন সুলতান,সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে মো: মহিউদ্দিন হেলাল ও মওদুদ আলম টুটুল, অর্থ সম্পাদক সুজন কৃষ্ণ দে, ধর্ম,ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক মো: জাকির হোসেন, পাঠাগার সম্পাদক মনজুর আলম খোকন,সদস্য মো:বাবুল কাশেম মেজবাহুল আলম, জান্নাতুল ফেরদৌস (জুবলী চৌধুরী)।

অপরদিকে জাতীয়তাবাদ আইজীবী ফোরাম মনোনিত ফরিদুর রহমান ও আমিরুল ইসলাম বাছেত প্যানেলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন- সহ-সভাপতি মো: ইউছুফ, মো: হাবিবুর রহমান বাচ্চু, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো: ইফতারুল হাসান শরীফ, মো: ইউসুফ, অর্থ সম্পাদক মো: কাওছার আহম্মেদ, ধর্ম,ক্রীড়া ওসংস্কৃতি সম্পাদক মো: তোয়াহা, পাঠাগার সম্পাদক মো: সফিউল্লাহ, মো: মনজুরুল ইসলাম, সদস্য মিসেস সাজেদা আখতার, লুৎফুর রহমান ফিরোজ ও মো: ছালাউদ্দিন আহাম্মদ প্রিন্স।

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ এর সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী এডভোকেট মাহাবুবুল হক লিটু বলেন, ভোলা জেলা আইনজীবী সমিতি ১০৯ বছরের পুড়ানো একটি সমিতি। অন্তত্য শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমরা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। আমাদের প্যানেল জয়লাভ করলে ভোলা জেলা আইনজীবীর কল্যানকর সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করে কাজ করবো। কোট ও বারের মধ্যে সুম্পর্ক নিশ্চিত করবো। আইজীবী সমিতির ভবনের উন্নয়নের পাশাপাশি জজশিপের কিছু কর্মচারীর অনিয়ম আছে এই অনিয়ম দূর করার চেষ্টা করবো।

ভোলা জেলা জাতীয়তাবাদ আইনজীবী ফোরাম এর প্রধান সম্মনয়কারী এডভোকেট সালাউদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ভোটের পরিবেশ খুবুই ভালো ছিলো। এখানে দলমতের উর্ধ্বে থেকে ব্যাক্তি পছন্দকে গুরুত্বদিয়ে আইনজীবীরা ভোট দিয়ে থাকে। নির্বাচনে দুটি প্যানেল থাকলেও দুই প্যানেলের নির্বাচনে অংশ নেয়া সদস্যরা ভোটারদের মন জয় করতে পারে তারা নির্বাচিত হন। আমরা চাই এমন ব্যাক্তিরা নির্বাচনে বিজয়ী লাভ করুর যারা বার-কোর্টের সাথে সম্মনয় রাখতে পারে। আমরা যাদের নমীনেশন দিয়েছে তারা বারের পরীক্ষিত নেতা। বিপদে আপদে তারা সব সময় পাশে ছিলো। তাই ভোটারদের রায় নিয়ে আমাদের প্যানেল নিরুঙ্কুশ বিজয় লাভ করবে এটাই আমার প্রত্যাশা।

নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন- ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইবুনাল এর বিচারক শামছুদ্দিন আহম্মেদ ও সহকারী নির্বাচন কমিশনার ছিলেন এডভোকেট একেএম নাছির উদ্দিন আহম্মেদ।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close