পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি

  ১৯ জানুয়ারি, ২০২২

স্ত্রীকে নতুন কাপড় পরিয়ে গ্রাম ঘুরিয়ে এনে হত্যা  

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

রাজবাড়ীর পাংশায় স্ত্রীকে নতুন কাপড় পরিয়ে একসাথে গ্রাম ঘুরে ঘরে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে স্বামী রুবেল।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল আটটার দিকে উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের কালিনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গ্রামের আকুল সরদারের ছেলে রুবেল সরদার (৩২) তার স্ত্রী লিপি খাতুন (২৭)কে গলা কেটে হত্যা করেছে বলে জানান স্থানীয়রা।

জানা যায়, লিপি খাতুন কলিমহর ইউনিয়নের সাজুরিয়া গ্রামের এলেম শেখের কন্যা। ১৫ বছর আগে তাদের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। লিপি খাতুন তিন সন্তানের জননী।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী প্রতিবেশী মো. রিপন বলেন, সকালে রুবেলের বাড়িতে চিৎকার শুনে এসে দেখি ঘরের দরজা আটকিয়ে বউকে মারধর করছে। আমরা দরজা ভাঙার চেষ্টা করেছি। আমরা ঘরের দরজা ভেঙে উদ্ধারের চেষ্টা করেছি পারিনি। একপর্যায়ে দরজার একপাশ ভেঙে গেলে ভাঙা দরজার মধ্য দিয়ে রুবেল একটি রক্তমাখা দা বের করে। তখন আমরা ভয় পেয়ে ঘরের দরজা বাহির থেকে আটকিয়ে ৯৯৯ কল দিয়ে পুলিশকে খবর দেই।

রুবেলের ভাবি শিউলি খাতুন বলেন, ওদের সংসারে মাঝে মধ্যেই ঝগড়াঝাটি হতো। রুবেল নেশা করে। প্রায়ই বউকে মারপিট করতো। এজন্য রুবেলের বউ বাবার বাড়িতে চলে যায়। গত তিন দিন আগে রুবেল বউকে বাড়ি নিয়ে আসে। আজ সকালে এই ঘটনা ঘটায়।

ইউপি সদস্য মো. মোন্তাজ আলী বলেন, আমি সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে জানতে পারি রুবেল সকালে বউকে নতুন কাপড় পরিয়ে একসঙ্গে গ্রামের কয়েকটি বাড়ি ঘুরে বেড়িয়েছে। পরে বাড়ি এসে বউকে ঘরের মধ্যে নিয়ে দরজা আটকিয়ে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটায়।

পাংশা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান বলেন, আমরা ৯৯৯ এর মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পারি। পরে ঘটনাস্থলে এসে রুবেলকে আটক করি। এবং লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠাই। এঘটনায় রুবেলের পরিবারসহ এলাকাবাসিদের মধ্য আতংক বিরাজ করছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
পাংশা,স্ত্রী হত্যা
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close