নরসিংদী প্রতিনিধি

  ০৯ ডিসেম্বর, ২০২১

নৌকার মনোনয়ন বাতিল, প্রার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি

তথ্য গোপন করায় নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার গোতাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এড. মতিউর রহমানের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন।

এতে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে বলে মনে করছেন নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় এড. মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) বিকালে নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার গোতাশিয়া ইউনিয়নের বাগেরহাট বাজারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে গোতাশিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আলতাফ হোসেন বলেন, চলতি নির্বাচনে ইউনিয়ন নেতাদের কেন্দ্রে পাঠানো তিনজনের তালিকায় প্রথমে থাকায় দলীয় মনোনয়ন পান এড. মতিউর রহমান। কিন্তু তিনি তার আয়করের তথ্য গোপন করে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংযুক্ত না করায় নির্বাচন কমিশন তার সেই মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করে বাতিল করে। ফলে দেশের মানুষের কাছে গোতাশিয়া ইউনিয়নবাসীসহ আওয়ামী লীগের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। দলের হাইকমান্ডের কাছে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেতা মনোহরদী-বেলাববাসীর অহংকার শিল্পমন্ত্রী এড. নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনসহ গোতাশিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ প্রশ্নের মুখে পড়েছে।

আলতাফ হোসেন আরও বলেন, এর দায় মতিউর রহমানের নিজের। দল তার দায় নিতে পারেনা। তাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে হাইকমান্ডের কাছে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আমরা আবেদন জানাচ্ছি।

সাংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- মনোহরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন পাভেল, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেম, তাজুল ইসলাম, ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আ. হাই প্রধান, ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর গোতাশিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এড. মতিউর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল বরকত রবিন এবং ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের মো. শাহাবুদ্দিন।

গত ২৯ নভেম্বর যাচাই-বাছাই শেষে আয়করের তথ্য গোপন করায় নৌকা প্রতীকের এড. মতিউর রহমানের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরবর্তীতে নরসিংদী জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে আপিল আবেদন করা হলে গত রবিবার বিকালে শুনানি শেষে পুনরায় তা নামঞ্জুর করা হয়।

এদিকে, সোমবার ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মো. শাহাবুদ্দিন তার মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল বরকত রবিন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

পরে মঙ্গলবার সকালে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে, সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা সকল যাচাই-বাছাই শেষে আবুল বরকত রবিনকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যন নির্বাচিত ঘোষনা করায় ইউনিয়ন বাসীর পক্ষ থেকে জানানো হয় প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নৌকার মনোনয়ন,মনোনয় বাতিল
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close