লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

  ২৮ নভেম্বর, ২০২১

লোহাগাড়ায় পাহাড় কেটে পাকাবাড়ি নির্মাণ!

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়ায় পাহাড় কেটে পাকাবাড়ি নির্মাণের কাজ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ পওয়া গেছে।

সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের চাকফিরানী ৮নং ওয়ার্ডের পাঁচকুনিয়া মাঠ সংলগ্ন নতুন পাড়া এলাকায় পাহাড় কেটে সরকারি জায়গায় পাকাবাড়ি নির্মাণ করছে স্থানীয় বাসিন্দা সিরাজুল ইসলামের ছেলে প্রবাসী মুহাম্মদ শাহজাহান।

স্থানীয়রা জানান, প্রসাশনকে ফাঁকি দিতে ১০/১৫ দিন ধরে রাতের আঁধারে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি করেছে শাহজাহান। তবে, প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকার কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা। এলাকাবাসীরা মন্তব্য, পাহাড় কেটে পাকাবাড়ি করার সাহস শাহজাহান কেমনে পায়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত প্রবাসী মো. শাহজাহান মুঠোফোনে জানান, পাহাড়টি আমার মায়ের নামে বন্দোবস্ত। পাহাড়ের উপর ঘর করতে পারছিনা। তাই মাটি কেটে পাহাড় সমান করে পাকাবাড়ি করছি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পাহাড় কাটা অপরাধ সেটা জানি। তাই উপজেলা প্রশাসন, ফরেস্টারের সাথে আমি কথা বলেছি। সবকিছু ঠিক করেই আমি পাহাড় কেটে বাড়ি করছি।

বড়হাতিয়া বনবিট কর্মকর্তা মুহাম্মদ লোকমান জানান, কুমিরাঘোনা নয়া পাড়ায় সরকারি পাহাড় কাটার বিষয়ে আমি জানতে পারলে গত কয়েকদিন পূর্বে সরেজমিনে গিয়ে বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ আহসান হাবিব জিতু জানান, পাহাড় কাটা অন্যায় এবং অপরাধ। পাহাড় বন্দোবস্ত হলেও কাটা যাবেনা। পাহাড় কেটে সরকারি জায়গায় কোনভাবেই পাকা স্থাপনা করা যাবে না। অভিযান চালিয়ে পাহাড় কাটার অপরাধে শাহজাহানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
লোহাগাড়া,চট্টগ্রাম
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close