নরসিংদী প্রতিনিধি

  ২৫ নভেম্বর, ২০২১

নিখোঁজের ৩ দিন পর নদী থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

প্রতীকী ছবি।

নরসিংদীর রায়পুরায় নিখোঁজের তিনদিন পর নদীর কচুরিপানার স্তুপের ভেতর থেকে জাকির মিয়া (২১) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে রায়পুরা উপজেলার শ্রীনগর ইউনিয়নের ভেলুয়ারচর গ্রামের মেঘনা নদী থেকে ওই শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে ঠিক কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে, তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না নিহতের পরিবারের সদস্যরা।

জানা যায়, নিহত জাকির মিয়া (২১) শ্রীনগর ইউনিয়নের শ্রীনগর গ্রামের হক মিয়ার ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় সোহেল মিয়া নামের এক ব্যক্তির ড্রেজার মেশিনে বালু আনলোডের কাজ করতেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত রবিবার দিবাগত রাত থেকেই নিখোঁজ ছিলেন জাকির মিয়া। তাকে হত্যার পর ওই কচুরিপানার স্তুপের ভেতরে বাঁশ দিয়ে পুঁতে রাখা হয়েছিল। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তার লাশ ভেসে উঠতে দেখে স্থানীয় লোকজন রায়পুরা থানার পুলিশকে খবর দেয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত যুবকের স্বজনরা বলছে, গত রবিবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বের হয়ে কর্মস্থল ওই ড্রেজার মেশিনের উদ্দেশ্যে রওনা হয় জাকির। কাজের স্বার্থে প্রায়ই ওই ড্রেজার মেশিনে রাত কাটাতে হত তার। ওই রাতের পর থেকেই তার আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। তার মুঠোফোনও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। আশপাশের লোকজন ও আত্মীয় স্বজনের বাড়িতেও তার খোঁজ করা হয়। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকেও তার ছবি পোস্ট দিয়েও সন্ধান চাওয়া হয়। আজ দুপুরে নদীর কচুরিপানার স্তুপের ভেতর থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

রায়পুরা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সত্যজিৎ কুমার ঘোষ জানান, নিখোঁজের তিনদিন পর মেঘনা নদীর কচুরিপানার স্তুপের ভেতর থেকে জাকির মিয়া নামের এক ড্রেজার শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। জাকির মিয়ার সঙ্গে ড্রেজার মেশিনে আরো যে তিনজন বালু আনলোডের কাজ করতেন তারা বর্তমানে পলাতক।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নরসিংদী,যুবকের মরদেহ,উদ্ধার
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close