সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

  ২৫ নভেম্বর, ২০২১

হারিয়ে গেছে গ্রাম-বাংলার অতীত দিনের খেলা

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

আধুনিকতার ছোঁয়ায় গ্রাম-বাংলা থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে মোরগ যুদ্ধ, হাডুডু, ডাংগুটি, ফেট্টিং খেলা, গোল্লা ছুট, লবণ কোঠা, পাগারে- পুকুরের পানিতে টগা খেলা সহ বিভিন্ন ধরনের খেলা। যে খেলায় পৃথক পৃথকভাবে শিশুসহ শিশুর বাবারাও অংশগ্রহণ করত। পড়াশোনা এবং কাজের ফাঁকে সাধারণত বিকেল বেলায় উল্লেখিত খেলা অনুষ্ঠিত হতো গ্রাম-বাংলার আনাচে-কানাচে। এর জন্য বাবা-মায়ের শাসন আর স্ত্রীর ভেচকি সহ্য করেও খেলায় অংশগ্রহণ করতে দ্বিধা করত না খেলোয়াড়েরা। আর গ্রামের শিশু-কিশোর এমনকি বৃদ্ধ নারী-পুরুষেরা জর্দা আর পানের কৌটা নিয়ে খেলা পরিদর্শনে ছুটে যেত অনাবাদি জমি বা খেলার মাঠে। তাদের হাতের তালি আর মুখের জয়ধ্বনি খেলোয়াড়দের আনন্দ যোগাত।

কালের আর্বতে সেই সকল খেলার স্থান আজ দখল করে নিয়েছে ক্রিকেট, ফুটবল, ভলিবল, ব্যাটমিন্টন, তাছাড়াও অতীতের খেলার পরিবর্তে মোবাইলে চলছে পাপজি, ফিরিফায়ার সহ বিভিন্ন ধরনের খেলা। যেখানে ধনাঢ্য পরিবারের সদস্যেরা স্থান পেলেও গ্রাম বাংলা দরিদ্র পরিবারের ছেলে মেয়েরা তাদের খেলা দেখার জন্য ছুটে যায় প্রতিবেশীদের ঘরের টিভির কাছে।

স্মৃতিচারণ করে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের মাসুমপুর গ্রামের ৮০ বছরের বয়োবৃদ্ধ গোলজার হোসেন জানান, আগের খেলা তো দূরের কথা, খেলার নামও এখন অনেকে ভুলে গেছেন।

কামারখন্দের শ্যামপুর গ্রামের আব্দুল বারেক (৭০) তার স্মৃতিচারণ করে বলেন, ডাংগুটি খেলার জন্য ছোট বেলায় কত মাইর খাইছি বাবা-মায়ের হাতে। এখন যে খেলা বের হয়েছে, কিছুই বুঝি না। টিভির পর্দায় তাকিয়ে তাকিয়ে কেবল পিটাপিটি দেখি।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
সিরাজগঞ্জ,গ্রাম-বাংলা,হা ডু ডু,মোরগ লড়াই,হারিয়ে গেছে
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close