বরগুনা প্রতিনিধি

  ১০ অক্টোবর, ২০২১

ধর্ষণ ও হত্যা মামলার আসামি ফের ‘ধর্ষণ’ চেষ্টায় গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ৫ বছরের কন্যা শিশুকে ধর্ষণ করে হত্যা মামলার আসামি বরগুনা সদর উপজেলার ৯ বছরের আরেক কন্যা শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নাঈমুর রহমানকে(২৯) গ্রেপ্তার করেছে বরগুনা থানা পুলিশ।

শনিবার (৯ অক্টোবর) দুপুর দেড়টার দিকে বরগুনা সদর উপজেলার ৫ নং আয়লা পাতাঘাটা ইউনিয়নের তুলাতলা ইটবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এঘটনা ঘটে।

রবিবার (১০অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নাঈমুরকে আদালতে তোলা হয়।

থানা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কেওড়াবুনিয়া ইউনিয়নের জব্বার মিয়ার ছেলে অভিযুক্ত খুনি ও ধর্ষক নাঈমুর রহমান বরগুনা সদর আয়লা পাতাঘাটা ইউনিয়নের ৩য় শ্রেণির এক ছাত্রীকে স্কুলের বাথরুমে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।  

পরে স্থানীয়রা শিশুটিকে উদ্ধার করে ৯৯৯-এ কল করে অভিযুক্ত নাঈমুর রহমানকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। নাঈমুর রহমান গত একমাস পূর্বে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় ৫ বছরের এক কন্যা শিশুকে ধর্ষণ করে হত্যা করে। ঢাকার আড়াই হাজার থানায় তার নামে একটি হত্যা মামলা চলমান। 

ভিকটিমের স্বজনরা জানান, দুপুর ১টার দিকে শিশুটি গোসল করতে পুকুরে গেলে ওত পেতে থাকা বখাটে নাঈমুর শিশুটিকে পাশের একটি স্কুলের বাথরুমে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ওর চিৎকারে এলাকার লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে। এ সময় আসামি পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আসামিকে আটক করে ৯৯৯-এ কল দিলে বরগুনা সদর থানার এসআই রেজাউল করিম বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে নাইমুরকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। 

বরগুনা থানার এসআই রেজাউল করিম বলেন, আসামি নাঈমুরকে আদালতে তোলা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জে তার বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ ও হত্যা মামলার বিষয় নিশ্চিত করে তিনি জানান, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার ৫ বছরের এক কন্যা শিশুকে ধর্ষণ করে হত্যা করে নাঈমুর, এমন অভিযোগ আছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
বরগুনা,ধর্ষণ ও হত্যা
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close