সাহারুল হক সাচ্চু, উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ)

  ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১

শুটকি চাতালের নারী শ্রমিকরা ভালো নেই

১০ ঘণ্টার পারিশ্রমিক ২০০ টাকা!

উল্লাপাড়ার মোহনপুরে একটি শুটকি চাতালে শুকানো মাছ নারী শ্রমিকরা বাছাই করছেন

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় শুটকি চাতালগুলোয় নারী শ্রমিকরা তাদের কাজে দিনের মজুরি বাবদ পান  দুইশ টাকা। এরা কাজ করেন প্রায় ১০ ঘণ্টা। 

উল্লাপাড়া উপজেলার মোহনপুর এলাকায় গড়ে উঠা শুটকি চাতালগুলোয় বছরের পাঁচ থেকে সাড়ে পাঁচ মাস নারী শ্রমিকরা কাজ করেন। এরা চাতালগুলোয় মাছ শুকানো ও পরে তা বাছাইসহ যাবতীয় কাজ করেন। দিনের ভোর বেলা থেকেই এদের কাজ শুরু হয়।

সরেজমিনে মোহনপুর এলাকায় গিয়ে আরো জানা গেছে, শুটকি চাতালগুলোয় প্রায় সবাই নারী শ্রমিক। এরা মোহনপুরের কাছাকাছি পাঙ্গাসী, চর মোহনপুর, চন্দ্রগাতিসহ বিভিন্ন গ্রামের বসতি বলে জানানো হয়। 

নারী শ্রমিকদের কজন হলেন—আছিয়া খাতুন, মালেকা খাতুন, আলেয়া বেগম, জয়ন্তী দাস, ফুলমতি দাস, মহিরন বেগম, রাবেয়া খাতুন। এরা দিন হাজিরায় চাতালে কাজ করেন। দিনের ভোর বেলা থেকে সন্ধ্যার আগ অবধি কাজ করেন। চাতাল মালিক ও নারী শ্রমিকরা জানান, এদের কাজের দিনের মজুরি দুইশ  টাকা।

প্রতিবেদককে মহিরন, আছিয়াসহ প্রায় সবাই জানান, তারা সংসারের বাড়তি আয়ে এখানকার চাতালগুলোয় কাজ করেন। উপজেলার চন্দ্রগাতি গ্রামের মহিরন ও রাবেয়া বাড়ি থেকে প্রায় আড়াই কিলোমিটার সড়ক পথ পায়ে হেঁটে এখানে এসে কাজ করেন, আবার পায়ে হেঁটেই বাড়ি ফেরেন বলে জানান। তাদের কথায়, সংসারের বাড়তি আয়ে চাতাল বসার শুরু থেকে পুরো মৌসুম কাজ করেন। 

চাতাল মালিক রেজাউল করিম বলেন, এবারে এখানকার চাতালগুলোয় পর্যাপ্ত মাছ না মেলায় নারী শ্রমিকদের সংখ্যা কমানো হয়েছে। গত কবছর ধরে শতাধিক নারী শ্রমিক কাজ করলেও এবারে ২০ থেকে ২৫ জন কাজ করছেন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নারী শ্রমিক,উল্লাপাড়া,শুটকি চাতাল
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close