বরিশাল প্রতিনিধি

  ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

চাকরিচ্যুত আব্দুস সালামের চাকরি বাণিজ্য!

আবদুস সালাম সরদার

ঘুষ ও দুর্নীতির দায়ে সদ্য চাকরিচ্যুত বরিশাল সিটি করপোরেশনের পানি সরবরাহ শাখার কর্মচারী (স্বঘোষিত আ'লীগ নেতা) আবদুস সালাম সরদারের বিরুদ্ধে এবার চাকরির প্রলোভনে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চাকরি দেওয়ার নাম করে মেয়রের নাম ভাঙিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতেন তিনি। সম্প্রতি চাকরি হারানোর পর বেরিয়ে আসছে তার বিভিন্ন প্রকার দুর্নীতির খবর।

নগরীর ২২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সহিদুল ইসলাম এ প্রতিবেদককে জানান, ২০১৭ সালে সিটি করপোরেশনের অফিস সহকারী পদের জন্য ৭০ হাজার টাকা  ঘুষ নেন আবদুস সালাম। সেই থেকে এখন পর্যন্ত চাকরি তো দুরের কথা, টাকা ফেরত দিতেও টালবাহানা করছেন থাকেন সালাম সরদার।

ভুক্তভোগী অভিযোগ করে বলেন, আগের মেয়াদে আহসান হাবিব কামাল যখন মেয়র ছিলেন, তখনকার সময় চাকরি দিবে এমন শর্তে ৭০ হাজার টাকা ঘুষ নেন। মেয়র কামালের শেষ কার্যদিবসে হঠাৎ একদিন সালাম জানান, কামাল মিয়া চাপে আছে, এখন আর চাকরি হবে না, তবে সাদিক আবদুল্লাহ (বর্তমান মেয়র) মেয়র হলে তোমার চাকরি হবে। সালামের এমন কথার আশ্বাসে আবারও চুপ থাকেন ভুক্তভোগী।

এদিকে মেয়র নির্বাচিত হন সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। তিনি মেয়র হয়েছেন তাও তিন বছরের বেশি। এভাবে বছরের পর বছর পেড়িয়ে গেলেও চাকরি তো দুরের কথা, টাকা ফেতর চাইতে গেলে নানা ধরনের অযুহাত দেখানো হয়।

২০১৮ সালের মাঝামাঝি জেলা কৃষকলীগ সভাপতি এডভোকেট সাইফুল আলম গিয়াস ও বরিশাল বিভাগীয় বঙ্গবন্ধু পেশাজীবি লীগ সভাপতি কুদ্দুসুর রহমান মন্টু তারা সালিশের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা আদায় করে দেন। বাকি টাকাও দ্রুত পরিশোধ করতে আবদুস সালাম সরদারকে বলা হলেও তিনি তা এখনও পরিশোধ করেনি।

এ ব্যাপারে, আবদুস সালাম সরদারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি ২০ হাজার টাকা দিয়েছি। বাকি টাকার ব্যাপারে জানতে চাইলে এরিয়ে গিয়ে পালটা প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, নগরীর ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এ বিষয় জানেন। তাকে তাকে জিজ্ঞাসা করলে পাবেন।

পরে ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুর রহমান ছাবিদের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আবদুস সালামের কাছ কোন টাকা পয়সা আমি নেইনি।

এদিকে ঘুষ ও দুর্নীতির দায়ে আব্দুস সালামসহ ১২জন  দুমাস আগে চাকরিচ্যুত হন। আব্দুস সালাম বরিশাল সিটি করপোরেশনের পানি শাখার  অফিস সহকারী পদে ছিলেন। আব্দুস সালাম সরদার সদর উপজেলার ৮ নং চাঁনপুরা ইউনিয়নের দুর্গাপুর এলাকার মো. আফতাব আলী সরদারের ছেলে।

পিডিএসও/এসএমএস

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
বরিশাল,চাকরিচ্যুত,চাকরি বাণিজ্য
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close