গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি

  ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

গোয়ালন্দে ওয়েট ব্রিজ স্কেল এখন গলার কাটা

গোয়ালন্দ উপজেলার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কোর্ট চত্বরে বিআইডব্লিউটিসি স্থাপিত ওয়েট ব্রিজ স্কেলের কারণে (ট্রাক ওজন মাপক যন্ত্র) দক্ষিণ বঙ্গের ২১জেলা থেকে আসা পণ্যবাহী ট্রাকের লম্বা লাইন তৈরি হয়। এতে মহাসড়কে কয়েক কিলোমিটার জুড়ে যানজট সৃষ্টি হয়।

মহাসড়কের পাশে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রবেশ পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে রোগীসহ স্থানীয় বাসিন্দাদের। বৃহস্পতিবার থেকে ওয়েট ব্রিজ স্কেলটি বিকল হয়ে পড়ে আছে। যার ফলে ওজন স্লিপ নিতে আসা পণ্যবাহী গাড়ির মালের চালান রসিদের সাথে ওজন স্লিপ হাতে লিখতে হচ্ছে। সে কারণে স্বাভাবিক সময়ের  চেয়ে অনেক বেশি সময় লাগছে। এত করে যানবাহনের দীর্ঘ  চাপ সামাল দিয়ে উঠতে না পারায় মহাসড়কে স্কেল এলাকায় যানজট তৈরি হচ্ছে। এছাড়া ব্যস্ততম মহাসড়কে দুরপাল্লার পরিবহনগুলো দীর্ঘ সময় যানজটে আটকে থেকে নানা বিড়ম্বনার শিকার হয় যাত্রীরা। আবার এসব গাড়ি স্কেল থেকে মাত্র ৬ কিলোমিটার পরই দৌলতদিয়া ঘাটে গিয়ে ফের লম্বা সিরিয়ালে পড়তে হয়। ফলে বাড়তি ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে চালক ও যাত্রীদের। এতে ওজন নিতে আসা পণ্যবাহী ট্রাকগুলো অনেকটা জায়গা ঘুরে স্কেলে উঠতে হয়। যানবাহন চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে কোন কোন সময় স্কেল থেকে মহাসড়কে ২-৩ কিলোমিটার পর্যন্ত যানজট দেখা দেয়।

বাংলাদেশ ওয়াকার্স পাটি গোয়ালন্দ শাখার পক্ষ থেকে অপরিকল্পিতভাবে স্থাপন করা ওয়েট ব্রিজ স্কেল স্থানান্তর ও সড়ক মেরামতের দাবিতে মানববন্ধন করেন। গোয়ালন্দ উপজেলার জামতলা এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের পাশে শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ওয়াকার্স পার্টির গোয়ালন্দ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুকুমার মন্ডল, যুব মৈত্রীর জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের আহবায়ক কুদ্দুস আলম।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকর্মী (ভূমি) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ওয়েট ব্রিজ স্কেলের কাছেই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থাকায় মাঝে মধ্যে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় রোগীদের। এ বিষয়টি মাথায় রেখেই স্কেলটি স্থানান্তর করার জন্য আমাদের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বরাবর প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

তিনি আশা করেন, খুব তাড়াতাড়ি ওয়েট স্কেল অন্যত্র স্থানান্তর করা হবে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক মো. শিহাব উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে ওয়েট স্কেলটি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ডিজিটাল সিস্টেমে স্লিপ দেয়া যাচ্ছে না, হাতে লিখে প্রত্যেকটি ট্রাকের ওজনের স্লিপ দেয়া হচ্ছে। যার কারণে একটু সময় লাগছে।

যানজটের বিষয়ে তিনি বলেন, গোয়ালন্দ মোড় থেকে পুলিশ একযোগে ট্রাক ছেড়ে দিলে ওয়েট স্কেল এলাকায় সাময়িকভাবে যানজট তৈরি হয়।

পিডিএসও/ জিজাক

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
গলার কাটা,গোয়ালন্দ,ওয়েট ব্রিজ স্কেল
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close