শেরপুর প্রতিনিধি

  ১১ জুন, ২০২১

১০ দিনে ৮০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত

শেরপুরে ১৪ দিনের বিধিনিষেধ আরোপ

শেরপুরে করোনাভাইরাসের বিস্তার বেড়েই চলেছে। চলতি জুনের গত ১০ দিনে ৮০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৪ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। জেলায় এ পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৮৫১ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭২২ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের। বর্তমানে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১১১ জন। 

আক্রান্ত রোগীরদের বেশির ভাগই বাড়িই শেরপুর পৌর এলাকায়। স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণেই জেলায় দ্রুত করোনা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। তাই জনসাধারণের স্বাস্থ্যসুরক্ষা নিশ্চিতের লক্ষে বৃহস্পতিবার রাতে জেলার শীর্ষ কর্মকর্তাদের এক জরুরি বৈঠক শেষে নতুন বিধিনিষেধ জারি করেছে জেলা প্রশাসন।

শেরপুরের জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে নতুন বিধিনিষেধের ব্যাপারে জানানো হয়। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে এ আদেশ কার্যকর হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তির বাসস্থান লকডাউনের আওতাভুক্ত থাকবে।

জনসমাগম হয় এ ধরণের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, বিবাহ অনুষ্ঠান, জন্মদিন, পিকনিক ও পর্যটন স্পটসমূহ বন্ধ থাকবে। সকাল ৭.০০টা হতে বিকাল ৫.০০টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট, শপিংমল খোলা রাখা যাবে। ওষুধের দোকানসমূহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ২৪ ঘন্টা খোলা রাখা যাবে। জরুরি পরিসেবা (যেমন বিদ্যুৎ, গ্যাস, কৃষিপণ্য পরিবহন, পশুখাদ্য ইত্যাদি) ও জরুরি প্রয়োজন (যেমন ঔষধ ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ইত্যাদি) ব্যতীত কেউ সন্ধ্যা ৭.০০টা হতে সকাল ৭,০০টা পর্যন্ত বাড়ির বাইরে অবস্থান করতে পারবেন না।

এদিকে হোটেল, রেস্তোরা, খাবারের দোকানসমূহ শুধু পার্সেল, টেকওয়ে, অনলাইন অর্ডার বা হোম ডেলিভারি সেবা প্রদান করতে পারবে। কোন অবস্থাতেই উক্ত স্থানসমূহে বসে খাবার গ্রহণ করা যাবে না। বাস, মাইক্রোবাস ইত্যাদি গণপরিবহনসমূহ নির্ধারিত আসনসংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে। তবে যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সিএনজি, অটোরিক্সা, ইঞ্জিনচালিত রিকশা, অন্যান্য রিকশাসমূহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধু ২ জন যাত্রী বহন করতে পারবে। সিএনজি ও অটোরিক্সাসমূহ কোনোক্রমেই সামনের সিটে যাত্রী বহন করতে পারবে না।

তবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ সরকার কর্তৃক জারিকৃত অন্যান্য নির্দেশনাসমূহ এ বিধিনিষেধের অন্তর্ভুক্ত বলে গণ্য হবে বলে জানানো হয়েছে এবং এই নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও হুশিয়ারি দেয়া হয়েছে।

পিডিএসও/এসএম শামীম

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
শেরপুর,বিধিনিষেধ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close