গাাজীপুর প্রতিনিধি

  ০৭ মার্চ, ২০২১

স্ত্রীকে কেটে ৭ টুকরা, আটক স্বামী

গাজীপুরে সদর উপজেলা মনিপুর এলাকা থেকে স্ত্রীর লাশের ৭ টুকরা উদ্ধার ও তার স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার বিকেলে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

নিহত রেহানা আক্তার (২০) সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বাম্ভরপুর থানার কাচিরগাতি এলাকার আব্দুল মালেকের মেয়ে। আর স্বামী মো: জুয়েল আহমেদ একই এলাকার মৃত বাতেন মিয়ার ছেলে।

জয়দেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মামুন আল রশিদ ও স্থানীয়রা জানান, জুয়েল ও রেহেনা সম্পর্কে বিয়াই-বিয়াইন ছিলেন। প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করে প্রায় দুই মাস আগে তারা গাজীপুরের মনিপুর এসে জাকির হোসেনের বাড়ি ভাড়া নেয় এবং স্থানীয় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয় এবং জুয়েল রেহেনাকে মারধর করলে সে অজ্ঞান হয়ে পরে। এক পর্যায়ে রেহেনাকে গলা কেটে হত্যা করে এবং শরীর ৭ টুকরা করে তিনটি বস্তায় ভরে বাড়ির পাশে জঙ্গলে টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকের ওপর ফেলে রাখে। রোববার স্থানীয়রা দুর্গন্ধ পেয়ে থানায় খবর দেয়।

ওসি মামুন আল রশিদ আরও জানান, নিহতের শরীর গলা থেকে কোমর, কোমর থেকে হাঁটু, হাঁটু থেকে দু’পা এবং বগল থেকে দু’হাত ছুরি দিয়ে কেটে বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে জুয়েলকে আটক এবং হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি জব্দ করা হয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
গাজীপুর,স্ত্রী,৭ টুকরা,আটক,স্বামী
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close