রাণীনগরে ইরি-বোরো ধানের ভালো ফলনের আশা

প্রকাশ | ১৩ এপ্রিল ২০২০, ১১:৪৯ | আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০২০, ১২:১০

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি

খাদ্য ভাণ্ডার হিসেবে খ্যাত নওগাঁর রাণীনগর উপজেলায় ৮টি ইউনিয়নে দিগন্তজুড়ে ইরি-বোরো ধানের ভরা মাঠ। যতদূর চোখ যায় সবুজ আর সবুজ। এ সবুজ রঙের মাঝে লুকিয়ে আছে কৃষকের সোনালি হাসি।

চলতি ইরি-বোরো মৌসুমে ধানের ভাল ফলনের বুকভরা আশা করছেন চাষিরা। শেষ মুহূর্তে তেমন কোনো রোগ-বালাই দেখা না দিলেও কৃষকরা বোরো ধানের ক্ষেতে নিবিড় পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।

স্থানীয় কৃষি বিভাগের পরামর্শে আধুনিক পদ্ধতিতে আগাম ধান চাষ করায় কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ এখন পর্যন্ত হানা না দেওয়ায় ও রোগ-বালাই কম থাকায় রাণীনগর উপজেলায় ইরি-বোরো ধানে সবুজে ভরা মাঠে এখন দোল খাচ্ছে ধানের গাছ। রাণীনগর কৃষি বিভাগ বলছে, চলতি মৌসুমে নির্ধারিত লক্ষমাত্রার চেয়ে বেশি ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। 

রাণীনগর কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছরে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ১৬ হাজার ৪শ হেক্টর জমিতে ইরি-বোরা ধান চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও চাষ হয়েছে ১৮ হাজার ৫শ ৮৫ হেক্টর জমিতে। 

উপজেলার পারইল ইউনিয়নের পারইল গ্রামের কৃষক আনোয়ার হোসেন জানান, এবার রোগ বালা কম থাকায় ভালো ফলন হবে বলে আশা করছি। তবে করোনার কারণে ধান কাটার শ্রমিক পেতে ভোগান্তি হতে পারে।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ শহিদুল ইসলাম জানান, উপজেলায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান চাষ হয়েছে। শেষ পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে রাণীনগর উপজেলায় ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমানে উপজেলার প্রতিটি মাঠের ধানগুলো প্রায় ৪০%-এর মতো শীষ বের হয়েছে। মাঠ পর্যায়ে আমার লোকজন কৃষকের সাথে ধান ঠিক রাখার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে।

পিডিএসও/হেলাল