অনলাইন ডেস্ক
  ০৫ ডিসেম্বর, ২০২০

একই খাবার নিয়ে বাড়ির সামনে হাজির ৪২ ডেলিভারি বয়!

বাড়িতে মা নেই। দাদীর সঙ্গে বেশ মজায় সেই দিনটি কাটাচ্ছিল খুদে। রান্নাবান্নার ঝামেলা করতে চাননি দাদী। তাই ভেবেছিলেন কিছু খাবার কিনে নেবেন। সেই মতো বছরের সাতেকের নাতনিকে খাবার অর্ডার দিতে বলেন। কথা অমান্য করেনি দস্যিটা। খাবার অর্ডার দেয় সে। তবে ইন্টারনেটের সমস্যাই বিপাকে ফেলল তাকে। এই কাণ্ডই এখন নেটদুনিয়ায় ভাইরাল।

কথা ছিল দুই বাক্স ফ্রায়েড চিকেন ফিলে এবং ভাত অর্ডার করার। কিন্তু খাবার অর্ডার দেওয়ার কাজ শুরু হওয়া মাত্র ইন্টারনেটের গতি কিছুটা শ্লথ হয়ে যায়। খাবার আদৌ অর্ডার দেওয়া গেল কিনা, তা কিছুতেই বুঝতে পারছিল না ওই শিশু। তবে ধৈর্য ধরতে পারেনি সে। একবার, দু’বার নয় পরপর বিয়াল্লিশ বার খাবার অর্ডার দিয়ে গিয়েছে। কিছুক্ষণ পর দরজায় বেল বাজে। তবে দরজা খুলতেই চক্ষু চড়কগাছ। ওই শিশুটি দেখে তার বাড়ির সামনে ৪২ জন ডেলিভারি বয় এসে উপস্থিত। তবে নিজেই যে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে তা প্রথমে বুঝতে পারেনি ওই বৃদ্ধার নাতনি। ডেলিভারি বয়রাই গোটা বিষয়টি বোঝায় তাকে।

------
নিজের ভুল বোঝার পর যেন মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে তার। কার্যত তাজ্জব হয়ে যায় শিশুটি। একে তো প্রয়োজনের তুলনায় বাড়ির সামনে এসে পৌঁছেছে অতিরিক্ত খাবার। তার উপর আবার বিলও হয়েছে প্রচুর। বিপদের জোড়া ফলায় যেন নাজেহাল হয়ে যায় সে। সেই সময় অবশ্য গোটা ঘটনাটি ফেসবুক লাইভ করছিলেন ওই শিশুরই এক প্রতিবেশী। শিশুর দাদীর কথামতো সোশ্যাল মিডিয়ায় অতিরিক্ত খাবার কেনার আরজি ফেসবুক লাইভে জানানো হয়। কয়েকজন প্রতিবেশী এগিয়েও আসেন। অতিরিক্ত খাবার কিনে নেন তারাই। বিপদ থেকে রক্ষা পায় শিশুটি। তাই ইন্টারনেটের গতি শ্লথ থাকলে খাবার অর্ডার দেওয়ার সময় সাবধান! এমন কাণ্ড ঘটতে যে বিশেষ সময় লাগে না। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

পিডিএসও/ জিজাক

ডেলিভারি বয়,একই খাবার
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়